ঢাকা, রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ |

 
 
 
 

বন্যায় রাস্তা ভেঙ্গে যাওয়ায় দুর্ভোগে দুই গ্রামের বাসিন্দা

গ্লোবালটিভিবিডি ৪:২৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০

ছবি- সংগৃহীত

আসাদ জামান, মানিকগঞ্জ : চলতি বছরের বন্যার তীব্র স্রোতে সাটুরিয়া উপজেলার হরগজ শিমুলিয়া সড়ক ভেঙ্গে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে সাটুরিয়া উপজেলার হরগজ গ্রামের সাথে দড়গ্রাম ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামের সড়ক সরাসরি যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। এতে করে বিপাকে পড়েছে দু'টি ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ। বাঁশের সাঁকো দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে তাঁদের। রিক্সা, ভ্যান, মটরসাইকেল, অটো ট্যাম্পু চলাচল পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে।

দড়গ্রাম ইউনিয়নের শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা বিল্লাল মিয়া জানান, বাড়ির সামনে বন্যার পানির তীব্র স্রোতে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। রিক্সা, ভ্যান, মটরসাইকেল, ট্যাম্পু চলাচল বন্ধ আছে শুধু মাত্র এই গর্ত হওয়ার কারনে। দুই ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করতো। বন্যায় রাস্তা ভেঙ্গে গর্ত হওয়ার পর স্থানীয়রা চাঁদা উঠিয়ে একটি বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করেছেন।

হরগজ শিমুলিয়া গ্রামের হাফিজুর রহমান বলেন, আমাদের হরগজ-দরগ্রাম-শিমুলিয়া সড়কটি অনেক পুরাতন। সড়কটি কাঁচা হলেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

একই গ্রামের আনোয়ার আলী বলেন, আমাদের হরগজ গ্রামে বিভিন্ন সবজিসহ বিভিন্ন ফসল উৎপাদন হয়ে থাকে। আমাদের বাড়িটি পড়েছে হরগজের শেষ মাথায়। ফলে আমাদের হরগজ ও দরগ্রামের উভয় বাজারে যেতে হয়। বর্তমানে বাঁশের সাঁকো থাকায় কোন পণ্য ভ্যান বা রিক্সা করে নিতে পারছি না। শুধু পায়ে হেঁটে চলাচল করতে হচ্ছে।

এ ব্যাপারে হরগজ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন জ্যোতি বলেন, বন্যার কারনে রাস্তাটি ভেঙ্গে গেছে। বাঁশের সাঁকো দিয়ে হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করছে। বন্যার পানি সম্পূর্ণ নেমে গেলে সড়কটির স্থান সংস্কারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

আরকে/জেইউ

 

 


oranjee