ঢাকা, শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ |

 
 
 
 

ইউএনও ওয়াহিদার অবস্থা অস্ত্রোপচারের পর স্থিতিশীল রয়েছে: চিকিৎসক

গ্লোবালটিভিবিডি ২:২২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৪, ২০২০

ফাইল ছবি

দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের অবস্থা এখন স্থিতিশীল রয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালের এক চিকিৎসক।

হাসপাতালের যুগ্ম পরিচালক ডা. বদরুল আলম বলেন, ‘বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে ১১ পর্যন্ত অস্ত্রোপচার করার পর বর্তমানে তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল আছে। তিনি নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’

ডা. বদরুল আরও বলেন, ‘আইসিইউর চিকিৎসকরা আমাকে জানিয়েছেন যে, তাঁর (ওয়াহিদা) অবস্থা এখন স্থিতিশীল এবং তাঁরা আজ কিছু পরীক্ষা করবেন।’

বুধবার রাত আড়াইটার দিকে দুর্বৃত্তরা ঘোড়াঘাট উপজেলা পরিষদ চত্বরে ইউএনও’র বাসার নাইটগার্ডকে বেঁধে রেখে পেছন দিকের ভেন্টিলেটর ভেঙে ঘরে প্রবেশ এবং ইউএনও ওয়াহিদা ও তাঁর বাবা ওমর আলীকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। পরে তাঁরা জ্ঞান হারিয়ে ফেললে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার সকালে আহতদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ইউএনও ওয়াহিদার অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে জরুরি ভিত্তিতে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় এনে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে, হামলার ঘটনায় প্রধান সন্দেহভাজন আসাদুল হককে (৩৫) শুক্রবার ভোর ৫টার দিকে দিনাজপুরের হিলির কালিগঞ্জ এলাকা থেকে আটক করেছে পুলিশ ও র‌্যাবের যৌথ দল।

আটক আসাদুল ঘোড়াঘাট উপজেলার ওসমানপুরের আমজাদ হোসেনের ছেলে। তাকে রংপুরে র‌্যাব কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাকিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়াহিদ ফেরদৌস।

এমএস/জেইউ


oranjee