ঢাকা, শনিবার, ৮ আগস্ট ২০২০ |

 
 
 
 

টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা নিহত

গ্লোবালটিভিবিডি ১:১২ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৬, ২০২০

ফাইল ছবি

কক্সবাজারের টেকনাফে কথিত বন্দুক যুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে ইয়াবা ও অস্ত্র।

গতকাল রবিবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের ওয়াব্রাং নানির বাড়ি এলাকার নাফ নদীর তীরে গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে বলে বিজিবির টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. ফয়সল হাসান খান জানান।

নিহতরা হলেন- উখিয়ার কুতুপালং ৫ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জি-ব্লকের ২/ই এর বাসিন্দা মোহাম্মদ শফির ছেলে মোহাম্মদ আলম (২৬) ও বালুখালীর ১৮ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের কে/৩ ব্লকের বাসিন্দা মো. এরশাদ আলীর ছেলে মোহাম্মদ ইয়াছিন (২৪)।

বিজিবি বলছে, নিহতরা মাদক পাচারকারী। তাদের সঙ্গে থাকা আইডি কার্ড দেখে পরিচয় শনাক্ত হওয়া গেছে।

ফয়সল বলেন, ভোরে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার বড় একটি চালান আসার খবরে বিজিবির একটি দল ঘটনাস্থলে অবস্থান নেয়। এক পর্যায়ে নদী সাঁতরিয়ে ২/৩ জন লোককে তীরে উঠতে দেখে বিজিবি তাদের থামার জন্য নির্দেশ দেন। এ সময় তারা তীরে উঠে দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করে।

তিনি বলেন, বিজিবি সদস্যরা এ সময় ওই মাদক পাচারকারীদের ধাওয়া দিলে তারা গুলি ছোঁড়ে। বাহিনীর ২ সদস্য আহত হন। এ সময় বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে। এক পর্যায়ে ঘটনাস্থলে ২ জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাদের উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

এছাড়া ঘটনাস্থলের আশপাশে তল্লাশি করে ৫০ হাজার ইয়াবা, ১টি চাইনিজ পিস্তল ও ২রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান বিজিবির এ কর্মকর্তা।

এমএস/জেইউ


oranjee