ঢাকা, সোমবার, ৩ আগস্ট ২০২০ | ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭

 
 
 
 

জামালপুরের বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

গ্লোবালটিভিবিডি ১১:২৩ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ০৪, ২০২০

ছবি- গ্লোবালটিভি

মোরাদুজ্জামান মোরাদ, জামালপুর: যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যমুনা নদীর পানি ধীর ধীরে কমতে শুরু করলেও বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত।

বন্যায় মানুষের ভোগান্তি চরমে উঠেছে। নতুন করে আরো দুই ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চাল প্লাবিত হয়ে আট পৌরসভা ও ৪৯ টি ইউনিয়নের ৪ লাখ মানুষ পানি বন্দি আছে। বিশুদ্ধ পানি ও খাদ্য সংকটে ভুগছে পানি বন্দি মানুষ। বন্যার পানিতে মারা গেছে ১২জন, নিখোঁজ ১জন।

গত ২৪ ঘন্টায় যমুনার পানি ৬ সেন্টিমিটার কমে শনিবার সকালে যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে বিপদসীমার ৭০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যমুনার পানি স্থির হয়ে ধীর গতিতে কমতে থাকলেও পৌরসভাসহ ৪৯টি ইউনিয়ন বন্যার পানিতে নিমজ্জিত আছে। পানিতে তলিয়ে আছে প্রায় ৩০ হাজার হেক্টর বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠও ৪শো ৫০টি গ্রামের কয়েক হাজার বসতবাড়ী।

যোগাযোগের ব্যবস্থা না থাকায় পরিবার ও গবাদি পশু-পাখি নিয়ে বিপাকে পড়েছে নিম্নাঞ্চালের মানুষ। বানভাসীদের শুকনো খাবারের প্রয়োজন দেখা দিয়েছে। পানি বন্দি মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণের কার্যক্রম ধীর গতিতে শুরু হয়েছে। তবে চাহিদার তুলানায় ত্রাণ খুবই অপ্রতুল।

জেলা ত্রাণ ও পূর্নবাসন কর্মকর্তা মোঃ নায়েব আলী জানান, বন্যা কবলিত এলাকায় নতুন করে ৪৩৪ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ১১লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। আরো ত্রাণের বরাদ্দ চেয়ে মন্ত্রণালয়ে আবেদনপত্র পাঠানো হয়েছে।

আরকে/জেইউ

 

 


oranjee