ঢাকা, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ | ১২ চৈত্র ১৪২৬

 
 
 
 

কুষ্টিয়ায় করোনা সন্দেহে শিশু আইসোলেশনে: প্রবাসী বাবা পলাতক

গ্লোবালটিভিবিডি ১:৫৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৬, ২০২০

ছবি: গ্লোবাল টিভি

কাজী সাইফুল, কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি থাকা এক শিশুকে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত সন্দেহে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। সন্দেহভাজন করোনা সংক্রমিত ওই শিশুটির বয়স ৭ মাস। কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আর এম ও তাপস কুমার সরকার সাংবাদিকদের কাছে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তাপস কুমার সরকার সাংবাদিকদের বলেন, গত ২৩ মার্চ শিশুটিকে তার পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেই সময় শিশুটি ঠান্ডা, কাশি, জ্বরে ভুগছিলো। ওই দিন শিশুটির পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছিলেন, তাদের কেউ দেশের বাইরে থেকে আসেননি এবং তাদের কেউ বিদেশ থেকে আসা কারও সংস্পর্শেও যাননি। এর পর ওই শিশুটিকে সাধারণ শিশু ওয়ার্ডে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছিলো।

আজ বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। এতোদিন তাকে নিউমোনিয়ার চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। শিশুটির ব্যাপারে আইইডিসিআরকে জানানো হয়েছে। তারা এই শিশুর নমুনা সংগ্রহ করবে।

বৃহস্পতিবার (২৬) মার্চ সকালে একাধিক চিকিৎসক ওই শিশুর পরিবারের সদস্যদের চাপ প্রয়োগ করলে এ সময় ওই শিশুটির এক আত্মীয় স্বীকার করেন, ওই শিশুর বাবা গত ৯ মার্চ সিঙ্গাপুর থেকে দেশে এসেছেন। ওই শিশুর পিতা কোনো কোয়ারেন্টিন করেননি। তিনি পরিবারের সবার সাথে স্বাভাবিকভাবে জীবন যাপন করছিলেন। এই তথ্য জানার পর দ্রুত শিশুটিকে কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে স্থাপিত আইসোলেশন ওয়ার্ডে নেওয়া হয়।

ওই শিশুর পরিবার কুষ্টিয়া শহরেই কালিশংকরপুর এলাকায় বসবাস করেন। বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) দুপুরে কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিশুটির পরিবার কুষ্টিয়া শহরের কালিশংকরপুরে যে বাড়িতে বসবাস করতো সে বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেন। বর্তমানে ওই শিশুটির বাবা পলাতক রয়েছে।

 এএইচ


oranjee