ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০২০ | ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

 
 
 
 

দরিদ্র জেলের জালে ৮১টি বড় পোয়া, দাম হাকাচ্ছেন ৮০ লাখ টাকা

গ্লোবালটিভিবিডি ১২:২৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৭, ২০১৯

ছবি সংগৃহীত

জসীম উদ্দীন, কক্সবাজার: দরিদ্র জেলে জামাল উদ্দীনের এক জালে ধরা পড়েছে সোনালী রংয়ের ৮১টি বড় পোয়া। আর সবকটি মাছের ওজন ১৭কেজি থেকে ২৫ কেজি পর্যন্ত। জামাল ৮১টি বড় পোয়ার মাছের দাম হাকাচ্ছেন ৮0 থেকে ৯০ লাখ পর্যন্ত।

বুধবার ৬ নভেম্বর কক্সবাজারের কুতুবদিয়া বঙ্গোপসাগরের এসব পোয়া মাছ ধরা পড়ে। ভাগ্যবান জেলে মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ি সাইবার ডেইল এলাকার মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে জামাল উদ্দীন।

বুধবার বিকেলের দিকে কক্সবাজার ফিশারীঘাটের ইসহাক নামে এক ব্যবসায়ী ৪০ লাখ টাকা দিয়ে মাছ গুলো কিনে নিয়েছেন এমন খবর ছড়িয়ে পড়ে। তবে বিষয়টি সত্য নয় বলে জানিয়েছেন, জামালের পরিবারের সদস্যরা।

জামালের চাচাতো ভাই ওয়াসিম আকরাম জানান, ধারদেনা করে দরিদ্র জামাল ছোট একটি ফিশিং ট্রলার কিনে নেয়। নিষেধাজ্ঞা উঠে যাবার পর প্রতিদিনের মত মঙ্গলবার রাতে বঙ্গোপসাগরের কুতুবদিয়া চ্যানেলে মাছের জাল ফেলেন। বুধবার (৬ নভেম্বর) সকালের জালে বিশাল আকারের পোয়া মাছের ঝাকটি ধরা পড়ে।

এসব ক্রয় করতে কক্সবাজার ও চট্রগ্রামে থেকে অনেক ব্যবসায়ী যোগাযোগ করছেন। অনেক দর কষাকষির পর  ৪০ লাখ টাকা বিক্রির জন্য কক্সবাজার এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে কথাও হয়, কিন্তু ওই ব্যবসায়ী নগদ টাকা দিতে না পারায় মাছ আর বিক্রি করা হয়নি, বৃহস্পতিবার সকালে চট্রগ্রামে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানান তিনি।

মৎসকর্মকতারা জানান, সামুদ্রিক এ জাতীয় পোয়া মাছের ফৎনার দাম বেশি। বিদেশে স্যুপ হিসাবে উপাদেয় খাবার এসব ফৎনা। বিদেশে রপ্তানি করার জন্যই এসব মাছ অনেক বেশি দামে বিক্রি হয়ে থাকে।

দরিদ্র জামালের জালে এসব পোয়া মাছ ধরা পড়ার খবরে এলাকাবাসী ও আশেপাশের লোকজন জামালের বাড়িতে ভিড় করেন। জেলে জামাল উদ্দীনের বাড়িতেও এখন আনন্দের বন্যা।

মাছ ব্যবসায়ী ও সংশ্লিষ্টদের দাবি, কুতুবদিয়া দ্বীপের ইতিহাসে এত বড় সাইজের পোয়া মাছ এর আগে জালে ধরা পড়েনি। খবর পেয়ে স্থানীয়রা মাছগুলো দেখতে যায়। ঘটনাটি সবার মাঝে কৌতূহল সৃষ্টি করে।

জেইউ/আরকে


oranjee

আরও খবর :