ঢাকা, রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১ |

 
 
 
 

রাকিবকে তালাক দিয়েই নাসির হোসেনকে বিয়ে করেছি : তামিমা

গ্লোবালটিভিবিডি ৬:৪৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১

সংগৃহীত ছবি

বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার নাসির হোসেন গত ১৪ ফেব্রুয়ারি তামিমা সুলতানাকে বিয়ে করেন। কিন্তু এই বিয়ে নিয়েই এখন সরগরম মিডিয়া। অভিযোগ, সাবেক স্বামী রাকিব হাসানকে তালাক না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন তামিমা। এই নিয়ে নাসির-তামিমার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন রাকিব হাসান। তবে তামিমা সুলতানা বলছেন যে, তিনি রাকিব হাসানকে তালাক দিয়েই নাসির হোসেনকে বিয়ে করেছেন।

বিষয়টি নিয়ে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরতে আজ বুধবার বিকালে সংবাদ সম্মেলনে আসেন নাসির হোসেন ও তার স্ত্রী তামিমা সুলতানা। সংবাদ সম্মেলনে তাদের সঙ্গে একজন আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন। এ সময় রাকিবের সঙ্গে তামিমার ডিভোর্সের প্রমাণপত্র প্রদর্শন করেন আইনজীবী।

এ সময় নাসির হোসেন বলেন, ‘এতদিন ও শুধু তামিম ছিল, আজ থেকে তামিমা হোসেন। আমি চাইব না কেউ কোনোভাবে ওর বিরুদ্ধে কিছু বলুক। যারাই যেখান থেকে কিছু বলবে আমি আইনগত ব্যবস্থা নেবো।’

নাসির বলেন, 'সোশ্যাল মিডিয়ায় যেসব কথা বলা হচ্ছে এসব হয়তো আমি সহ্য করতে পারছি কিন্তু তামিমা তো সহ্য করতে পারছে না। ও যদি যেকোন মুহূর্তে রঙ ডিসিশন নেয় তাহলে এর দায়ভার কে নেবে? আর রাকিব সাহেব যেভাবে কথা বলেছে, এভাবে তো বলতে পারেন না। তামিমাকে কিছু বলা মানে আমাকে বলা।'

এ সময় তামিমা সুলতানা বলেন, ‘আমি আমার সাবেক স্বামী রাকিবকে তালাক দিয়েই নাসির হোসেনকে বিয়ে করেছি। ২০১৬ সালে আমি তালাকের জন্য আবেদন করি। ২০১৭ সালে সেটি মঞ্জুর হয়। আমাদের বিয়ে হয়েছিল এবং একটি কন্যা সন্তান আছে, এই বিষয় ছাড়া রাকিব যা বলেছে তার সবই মিথ্যা।’

নাসির হোসেন বলেন, ‘আমি সবকিছু জেনেশুনেই তামিমাকে বিয়ে করেছি। আমরা নিয়মের বাইরে কিছু করি নাই। রাকিব সাহেব যা করছেন এগুলো আমাদের জন্য বিব্রতকর। আমাদের দুইজনেরই পরিবার আছে। পরিবারের সবার মান-সম্মান আছে। আপনাদের সবার কাছে আমার আবেদন, দয়া করে আমাকে ও তামিমাকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করবেন না।’

এ সময় তাদের আইনজীবী বলেন, ‘রাকিবের সঙ্গে তামিমার ডিভোর্স হয়েছে। আমাদের হাতে ডিভোর্সের প্রমাণপত্র আছে। আশা করি, আপনারা সবাই নাসির-তামিমার পাশে থাকবেন। আপনাদের একটা খবর বা কারো একটা মন্তব্যের জন্য যেন তাদের কোনো ক্ষতি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন।’

এমএস/জেইউ 

 


oranjee