ঢাকা, শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ |

 
 
 
 

ফের বার্সেলোনাতেই মেসি!

গ্লোবালটিভিবিডি ২:৫৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৪, ২০২০

ছবিঃ সংগৃহীত

আগের দিন ইউসেপ মারিয়া বার্তোমেউয়ের সঙ্গে বৈঠকে কোনো ফায়সালাই নাকি হয়নি। হোর্হে মেসি ছেলের ক্লাব ছাড়ার দাবিতে অনড় ছিলেন। ওদিকে, বার্সেলোনা বোর্ডও নিজেদের অবস্থান থেকে একচুলও নড়ছিল না। লিওনেল মেসিকে তাঁরা ছাড়তেই রাজি নয়। তবে কাল সকাল থেকেই ঘটনায় ‘ইউ টার্ন।’

মেসির ব্যুরো ফ্যাক্স পাঠানোর খবর প্রথম দেয়া ‘টিওয়াইসি স্পোর্টস’-এর সাংবাদিক মার্তিন আরেভালো টুইটারে লিখলেন, ‘আরো এক বছর বার্সাতেই থেকে ২০২১-এ মেসির ফ্রি ট্রান্সফারের সম্ভাবনা প্রবল। আর্জেন্টাইন এখন তেমনটাই ভাবছেন।’ ওদিকে, কাতালান সংবাদ মাধ্যম ‘দেপোর্তিভো কুয়াত্রো’ আবার মেসির বাবাকে কথা বলালেন ক্যামেরার সামনে। বার্তোমেউয়ের সঙ্গে আগের দিনের সভার পর কাল সকাল থেকেই আবার ব্যস্ত দিন শুরু হয়েছিল তাঁর। শুরুতে পারিবারিক আইনজীবীর সঙ্গে দেখা করেছেন তিনি।

গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময়ই ‘কুয়াত্রো’র সাংবাদিকের প্রশ্ন, ‘আরো এক বছর বার্সায় থেকে মেসির ২০২১-এ ফ্রি ট্রান্সফারের সম্ভাবনা আছে কি?’ স্প্যানিশে হোর্হে শুধু বললেন, ‘সি’, অর্থাৎ হ্যাঁ। পরের প্রশ্ন ধেয়ে গেল, ‘বার্তোমেউয়ের সঙ্গে গতকালের সভা কেমন ছিল?’ হোর্হে উত্তর দিলেন, ‘মুই বিয়েন’, অর্থাৎ বেশ ভালো। তার মানে, যেমন খবর বেরিয়েছিল বেশ অস্বস্তিকর একটা অবস্থা ছিল দুই পক্ষের ওই আলোচনায়, কেউ কাউকে ছাড় দিতে রাজি ছিলেন না; আসলে তা নয়। টিওয়াইসিই খবর দিয়েছিল, হোর্হে বার্তোমেউকে স্পষ্ট করেই বলেছেন, ‘আমার ছেলে ক্লাব ছাড়তে চায়।’

ওদিকে, এক পরিচালককে নিয়ে সভায় বসা বার্তোমেউ জোর দিয়েছেন আর্জেন্টাইন তারকাকে না ছাড়ার ব্যাপারে। ২০২১ পর্যন্ত মেসি তো চুক্তিতে আছেনই, নতুন করে আরো এক বছরের চুক্তি বাড়ানোর ইচ্ছার কথাও নাকি তিনি জানিয়েছেন। তাতে পরিস্থিতি যেমন ছিল কোনো পক্ষ ছাড় না দিলে বিষয়টি আসলে সুরাহার দিকে এগোনোর পথ ছিল না।

সে ক্ষেত্রে মেসিই কি ছাড় দেয়ার পথে হাঁটলেন। এই সম্ভাবনা যে আলোচনায় ছিল না, তা নয়, কিন্তু তা ছিল অস্পষ্টতায় ঢাকা। বার্সেলোনার অনুশীলন ক্যাম্পে তাঁর যোগ না দেয়ায় অন্তত থেকে যাওয়ার ইঙ্গিত ছিল না। তবে শেষ পর্যন্ত বার্তোমেউয়ের সঙ্গে হোর্হে মেসির সভাতেই বরফ গলছে তা এখন অনেকটাই স্পষ্ট। মেসিকে ছাড়ার কোনো আলোচনাতেই যেতে রাজি ছিল না বার্সা।

এমএস/জেইউ


oranjee