ঢাকা, বুধবার, ৫ আগস্ট ২০২০ | ২১ শ্রাবণ ১৪২৭

 
 
 
 

করোনা মহামারীর মধ্যেই উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল আজহা

গ্লোবালটিভিবিডি ১:২০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০১, ২০২০

ছবিঃ সংগৃহীত

ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত হয়ে উদযাপন করা হচ্ছে দেশের মুসলিমদের দ্বিতীয় বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা। কিন্তু করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারীর কারণে ঈদ উদযাপনে বিরাজ করছে কিছুটা শঙ্কা।

ইসলাম ধর্মের বিশ্বাস অনুযায়ী, মহান আল্লাহর নবী হযরত ইব্রাহীমের ঈমানের পরীক্ষা নেয়ার জন্য তাঁর একমাত্র ছেলে হযরত ইসমাইলকে কোরবানী করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। নবী ইব্রাহীমের সেই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার স্মরণে এ দিন সচ্ছল মুসলিমরা পশু কোরবানী করে থাকেন।

এবার করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া নিয়ন্ত্রণে রেখে ঈদ উদযাপনে সরকার বিভিন্ন সুরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। ঈদুল ফিতরের মতো, এবারও মানুষকে ঈদগাহ ও খোলা জায়গার পরিবর্তে নিকটবর্তী মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করতে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশ দেয়া হয়।

ঈদের নামাজের আগে মসজিদগুলো জীবাণুমুক্ত করা এবং মেঝেতে কার্পেট না বিছানোর পরামর্শ দেয় সরকার।

মুসল্লিদের বাড়ি থেকে নামাজের বিছানা নিয়ে আসতে বলা হয়। এছাড়া মসজিদের প্রবেশ পথে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখতে বলা হয়। তাঁদের মসজিদের ভেতরে অবশ্যই মাস্ক পরতে এবং মসজিদে আগে থেকে রাখা নামাজের বিছানা ও টুপি ব্যবহার করা এড়িয়ে চলতে বলা হয়।

শিশু, প্রবীণ, শারীরিক অসুস্থ এবং অসুস্থদের সেবা দেয়ায় নিয়োজিতদের ঈদের নামাজে অংশ না নিতে বলা হয়।

পশু জবাই দেয়ার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা জারি করেছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

স্থানীয় প্রশাসন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, জনপ্রতিনিধি, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্মী এবং মসজিদ পরিচালনা কমিটিকে এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতি বিবেচনা করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এ ঈদে জাতীয় ঈদগাহের পরিবর্তে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে সকাল ৭টায়।

এমএস/জেইউ


oranjee