ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ | ১২ জ্বিলকদ ১৪৪৫

মেহেরপুরে ইউপি সদস্য হত্যায় পিতা-পুত্রের যাবজ্জীবন

মেহেরপুরে ইউপি সদস্য হত্যায় পিতা-পুত্রের যাবজ্জীবন

ছবি: গ্লোবাল টিভি

রাব্বি আহমেদ, মেহেরপুরঃ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ষোলটাকা গ্রামের ইউপি সদস্য কামাল হত্যা মামলায় পিতা-পুত্রের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। 

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মেহেপুর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক রিপতি কুমার বিশ্বাস এই রায় ঘোষণা করেন । দন্ডিতরা হচ্ছেন-মোঃ মালেক জোয়ার্দার (৬০) ও তার পুত্র আলমগীর জোয়ার্দ্দার (৩২)। 

মামলা সুত্রে জানা যায়, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ২০১৭ সালে মে মাসের ২৫ তারিখে মালেক জোয়ার্দার ও তার ছেলে আলমগীরসহ অন্যান্য আসামীরা ইউপি সদস্য কামাল হোসেনের বাড়িতে গিয়ে তার ভাই কাফেল উদ্দিনকে মারধর করে। ঘটনাটি শুনতে পেয়ে কামাল হোসেন মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি আসার সময় আসামিরা তার পথরোধ করে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করে। পরিবার ও স্থানীয়রা কামাল হোসেনকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

এই ব্যাপারে নিহত কামাল হোসেনের ভাতিজা মোঃ ফারুক হোসেন বাদি হয়ে ১২ জনকে আসামি করে ৩০২ ও ৩৪ ধারায় গাংনী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। যার মামলা  নম্বর ১৬৯/১৭। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শহীদুল ইসলাম মামলার তদন্ত শেষে আসামীদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট প্রদান করেন। মামলায় ১০ জন সাক্ষির সাক্ষ্য ও বাদী বিবাদীর আইনজীবীদের যুক্তি তর্ক শেষে আসামী মোঃ মালেক জোয়ার্দার ও তার পুত্র আলমগীর জোয়ার্দ্দারের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়। 

মামলায় আসামী পক্ষের কৌশুলি ছিলেন এ কে এম শফিকুল আলম ও রাষ্ট্রপক্ষের কৌশুলি ছিলেন অতিরিক্ত পি পি কাজী শহিদুল হক।