ঢাকা, রবিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ | ১৫ মাঘ ১৪২৯ | ৭ রজব ১৪৪৪

সাংবাদিকদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করলেন মহেশখালীর ইউএনও

সাংবাদিকদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করলেন মহেশখালীর ইউএনও

ছবি: গ্লোবাল টিভি

রহিদুল কবির, কক্সবাজার: সাংবাদিকতা পেশার প্রতি কটুক্তি করেছেন কক্সবাজারের মহেশখালীর ইউএনও মোঃ ইয়াছিন।
শনিবার মহেশখালী উপজেলা হলরুমে মহেশখালী উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত উপকূলীয় এলাকার মহেশখালীর লবণ চাষীদের সাথে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) মতবিনিময় সভা শেষে তিনি স্থানীয় সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিকের সামনেই সাংবাদিকতা পেশা ও সাংবাদিকদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেন তিনি ।

ইউএনও মোঃ ইয়াছিন উত্তেজিত হয়ে সাংবাদিকদের নিয়ে নানা মন্তব্য করতে থাকলে তাকে থামানোর চেষ্টা করেন এমপি। তখন এমপিকেই নানা প্রশ্ন করতে থাকেন মোঃ ইয়াছিন। তিনি বলেন, হোয়াট ইজ সাংবাদিক? কেন দাওয়াত দিতে হবে তাদের? দাওয়াত ছাড়া আসলে আসবে, না আসলে নাই।

এই অনুষ্ঠান শেষে মহেশখালীর উপকূলীয় অঞ্চলের প্রাকৃতিক সম্পদ নিয়ে বিসিক কী উদ্যোগ নিয়েছে, তা সাংবাদিকরা বিসিকের নেতৃবৃন্দের কাছে জানতে চাইলে সাংবাদিকদের অবজ্ঞা করে তাদের কিছু বলতে দেননি ইউএনও। আ. লীগের নেতৃবৃন্দের সামনেই সাংবাদিকদের অবজ্ঞা করে বিসিক কর্মকর্তাকে গাড়িতে তুলে নিয়ে চলে গেলেন তিনি। সাংবাদিকদের অপমান করায় সেখানেই দুঃখ প্রকাশ করেন সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক। এর অল্পকিছু সময় পর ফের উপজেলা হলরুমের সামনে ফিরে আসেন ইউএনও।

এ সময় এমপি আশেক উল্লাহ রফিক ইউএনও ইয়াছিনকে সাংবাদিকদের সাথে সমন্বয় করে সামনের প্রোগ্রাম আয়োজন করার পরামর্শ দিলে ইউএনও ‘হোয়াট ইজ্ সাংবাদিক’ বলে ঐ মন্তব্য করেন। 

এ নিয়ে চরমভাবে ক্ষুব্ধ হয়েছেন মহেশখালীর সকল সাংবাদিক। এ আচরণের প্রতিবাদে ২৩ অক্টোবর দুপুরে উপজেলা সড়কে সমবেত হন মহেশখালীর কর্মরত সাংবাদিকরা। সাংবাদিকদের নিয়ে ইউএনওর এমন অপ্রত্যাশিত আচরণের নিন্দা জানিয়েছেন জেলা ও উপজেলার সিনিয়র সাংবাদিকরা।

আগামীকাল ২৫ অক্টোবর সর্বস্তরের সাংবাদিক ও সাধারণ মানুষের সমন্বয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করার পাশাপাশি আগামী ২৭ অক্টোবর কক্সবাজার জেলা সদরে মানববন্ধনের পর জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট দফতরে স্মারকলিপি প্রদান করা হবে বলেও জানান স্থানীয় সাংবাদিকরা।

এএইচ