ঢাকা, রবিবার, ৩ জুলাই ২০২২ | ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ | ৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

গাজীপুরে বকেয়া বেতন-বোনাসের দাবিতে অবরোধ, পুলিশের লাঠিচার্জ

গাজীপুরে বকেয়া বেতন-বোনাসের দাবিতে অবরোধ, পুলিশের লাঠিচার্জ

ছবিঃ: গ্লোবাল টিভি

মোঃ মোক্তাদ হোসেন, গাজীপুর: গাজীপুরের কোনাবাড়িতে একটি পোশাক কারখানায় বকেয়া বেতন ও  ঈদ বোনাসের দাবিতে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন কারখানার শ্রমিকরা। 

সকাল সাড়ে আটটার দিকে কোনাবাড়ী এলাকার এন‌টি‌কে‌সি না‌মের পোশাক কারখানার কয়েক হাজার শ্রমিক কারখানার সামনে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ ও শিল্প পুলিশ সদস্যরা এসে শ্রমিকদের বুঝিয়ে মহাসড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেয়ার অনুরোধ করে ব্যর্থ হয়। পরে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ারশেল ও লাঠিচার্জ করলে শ্রমিকরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। কারখানা এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। 

পলিশ ও শ্রমিকরা জানায়, এপ্রিল মাসের বেতন ও ঈদ বোনাস না দিয়ে  ওই কারখানা কর্তৃপক্ষ ঈদের আগে কারখানা বন্ধ করে পালিয়ে যায় । এরপর কারখানাটি আর উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করেনি। প্রায় প্রতিদিনই শ্রমিকরা কারখানার প্রধান ফটকে এসে ফিরে যায়। আজ সকালে কয়েক হাজার শ্রমিক সঙ্ঘবদ্ধ হয়ে কারখানার গেটের গেটের সামনে অবস্থান নেয়। পরে তারা ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। এ সময় পুলিশ বাধা দিলে তাদের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। 

পুলিশ সড়ক থেকে শ্রমিকদের সরিয়ে নিতে কয়েক রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে ও লাঠিচার্জ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে শ্রমিকরা কারখানার ভিতরে গিয়ে বেতন ও বোনাসের দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকে। পুলিশ কারখানা কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে আগামী জুন  বকেয়া ঈদ বোনাস ও বেতন দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিলে শ্রমিকরা কারখানা থেকে বাড়ি ফিরে যায়।  

কারখানার জিএম বুলবুল আহমেদ জানান, মালিক পক্ষের সাথে কথা হয়েছে, আগামী মা‌সের ৫ তারিখে শ্রমিকদের বকেয়া বেতন ও  বোনাস দেয়া হবে।

এএইচ