ঢাকা, বুধবার, ৮ জুলাই ২০২০ | ২৪ আষাঢ় ১৪২৭

 
 
 
 

ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে ১২ ঘণ্টা পর একজনকে জীবিত উদ্ধার

গ্লোবালটিভিবিডি ৯:৪০ পূর্বাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ১২ ঘণ্টা পর এক ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার সকাল ১০টায় এ লঞ্চডুবির ঘটনা ঘটে। রাত ১০টার দিকে লঞ্চটি উদ্ধারের সময় এই লোককে ভেসে উঠতে দেখে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। এরপর দ্রুত তাঁকে উদ্ধার করে পাশের একটি নৌকায় তোলা হয় এবং লাইফ জ্যাকেট পরিয়ে তাঁর দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিক করার চেষ্টা করা হয়। তাঁর ঠোঁঠের কোণে হালকা রক্তের আভা দেখা গেছে।

উদ্ধারকৃত ব্যক্তিকে অ্যাম্বুলেন্সে করে মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর নাম সুমন মিয়া।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত ১০টার দিকে লঞ্চটি উদ্ধারের সময় তিনি ভেসে ওঠেন। লঞ্চের এক কোণা ভেসে উঠলেই তিনি সেখান থেকে বেরিয়ে আসেন। কিন্তু লঞ্চের টিউবটি ফেটে যাওয়ায় লঞ্চটি আবার তলিয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পরেই ওই ব্যক্তি চোখ মেলে তাকান।

তবে দীর্ঘ সময় পানির নিচে আটকে থাকায় তাঁর শরীরের তাপমাত্রা নেমে গিয়েছিল। পানির নিচে তলিয়ে গেলেও এ ব্যক্তি কীভাবে বেঁচে গেলেন তা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছে। ধারণা করা হচ্ছে, তিনি যেখানে আটকা পড়েছিলেন সেখানে হয়তো সেভাবে পানি প্রবেশ করেনি।

এদিকে সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, লঞ্চডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ জন শিশু ৮ নারী ও ২০ পুরুষ। বেলা সোয়া ১২টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মো. শাহ জামাল জানান, উদ্ধার করা লাশের মধ্যে পুরুষ ২০ জন। নারী ৮ জন ও শিশু ৪টি।

এএইচ/জেইউ

 


oranjee