ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ |

 
 
 
 

দলীয় সদস্য পদ হারালেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী

গ্লোবালটিভিবিডি ১১:৩০ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৫, ২০২১

ছবি: সংগৃহীত

দলীয় সদস্য পদ হারালেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি। নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সদস্যপদ থেকে তাঁকে বহিষ্কার করেছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহাল ওরফে প্রচণ্ডপন্থী গ্রুপ।

দেশটিতে ক্ষমতার লড়াই বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে কিন্তু সম্প্রতি তা আরো চরম আকার ধারণ করেছে। সাবেক প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহাল ওরফে প্রচণ্ড প্রধানমন্ত্রী ওলির বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব উত্থাপন করতে পারেন এবং প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভাণ্ডারির বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রস্তাব আনতে পারেন, এমনটা জানতে পেরে সম্প্রতি আকস্মিকভাবে পার্লামেন্ট বিলুপ্ত করেন প্রধানমন্ত্রী ওলি। এ বিষয়টি সেখানকার আদালতে উঠেছে।

নেপালের বর্তমান ক্ষমতায় নেপাল কমিউনিস্ট পার্টি। এর এক অংশের নেতৃত্ব দিচ্ছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহাল ওরফে প্রচণ্ড।

রবিবার তাঁর নেতৃত্বাধীন অংশ সাধারণ সদস্য পদ থেকে বহিষ্কার করেছে প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলিকে। দলীয় নেতাদের সাম্প্রতিক অবস্থান সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিতে ব্যর্থ হওয়ার জন্য কেপি শর্মা ওলির বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় সাবেক প্রধানমন্ত্রী প্রচণ্ড এবং মাধব কুমার নেপালের নেতৃত্বে স্ট্যান্ডিং কমিটি। সেখানেই বৈঠকে কেপি শর্মা ওলির দলীয় সদস্য পদ বাতিল করার সিদ্ধান্ত হয়।

উল্লেখ্য, নেপাল কমিউনিস্ট পার্টিতে চেয়ারম্যানের পদ আছে দুইটি। এর একটি পদে আছেন প্রধানমন্ত্রী ওলি। আরেকটি পদে আছেন পুষ্প কমল দাহাল ওরফে প্রচণ্ড। ডিসেম্বরে দলের বিদ্রোহী অংশ দলের চেয়ারম্যানের পদ থেকে ওলিকে সরিয়ে দেয়। এরপর মাধব কুমার নেপালকে দলের দ্বিতীয় চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়। প্রথম চেয়ারম্যান হিসেবে অবস্থান করছেন পুষ্প কমল দাহাল ওরফে প্রচণ্ড।

গত ১৫ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলির কাছে সম্প্রতি দলীয় নীতির বিরুদ্ধে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার বিষয়ে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী ওলি এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে ব্যর্থ হয়েছেন। এ কারণে রবিবার প্রচণ্ডের নেতৃত্বাধীন অংশ বৈঠকে বসে এবং তাঁকে দলীয় সদস্য পদ থেকে বহিষ্কার করে। এতে ওলির বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয় যে, তিনি দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন।

এএইচ/জেইউ 


oranjee