ঢাকা, রবিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০ | ১২ মাঘ ১৪২৬

 
 
 
 

হংকংয়ে থামছে না বিক্ষোভ

গ্লোবালটিভিবিডি ৩:১৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০১৯

ছবি সংগৃহীত

চার মাসেরও বেশি সময় পেরিয়েছে। হংকংয়ে থামছে না বিক্ষোভ। এর মধ্যেই এবার অন্তঃসত্ত্বা এক মহিলার উপর পিপার স্প্রে বা মরিচ গুঁড়ো ছড়িয়ে তাঁকে মাটিতে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে।

গণতন্ত্রকামীদের অন্যতম প্রতিনিধি জোশুয়া ওয়াং টুইটারে একটি ভিডিও প্রকাশ করে হামলার ঘটনাটি তুলে ধরেছেন। ওই ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, বিক্ষুব্ধ মহিলাকে ঘিরে ধরেছে সশস্ত্র পুলিশ বাহিনী। তাদের মধ্যে এক জন পিপার স্প্রে নিয়ে হঠাৎই ওই মহিলার মুখে ছেটাতে শুরু করে। তবে পুলিশের সঙ্গে তাঁর বাদানুবাদ থামেনি। তারপর পুলিশ মহিলাকে নিজেদের দিকে টেনে নিয়ে যায়।

মঙ্গলবার সকাল ১০টা নাগদ ঘটনাটি কৌলুনের হাং হুমে ঘটেছে। আজ বুধবারও গোটা শহরজুড়ে চলছে বিক্ষোভ। তবে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে হংকংয়ের চিনপন্থী প্রশাসক ক্যারি ল্যাম দাবি করেছেন, অনেকেই পেশাগত কারণে বিক্ষোভ থেকে সরে আসতে চাইছেন। বিক্ষোভকারীর স্বার্থপরের মতো কাজ করছেন।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের শুরুতেই তাইকু শিং শহরের সিটি প্লাজা নামে একটি শপিং মলে প্রতিবাদী এক স্থানীয় কাউন্সিলররে উপর ছুরি নিয়ে হামলা চালায় এক দুষ্কৃতকারি। ওই কাউন্সিলরের কান কামড়ে ছিঁড়ে নেয় হামলাকারী। বেশ কয়েকমাস ধরে হংকংয়ে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য চলছে গণআন্দোলন।

চীনপন্থী শাসক ক্যারি ল্যামকে উৎখাত করতে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে আন্দোলন। এই পরিস্থিতিতে গণতন্ত্রপন্থী নেতা জোশুয়া ওয়াংয়ের বিরুদ্ধে কাউন্সিল ভোটে দাঁড়ানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করায় সরকারের প্রতি বিদ্বেষ আরও বেড়েছে। পুলিশের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন আন্দোলনকারীরা। ‘ব্ল্যাক পুলিশ’ বলে স্লোগানও উঠছে।

বিক্ষোভের মুখে গত মাসে পিছু হটে হংকংয়ের চীনপন্থী ক্যারি ল্যাম প্রশাসন৷ বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিল পাকাপাকিভাবে রদ করার কথা ঘোষণা করা হয়৷ যদিও এই ঘোষণায় চিড়ে ভেজেনি৷ এখনই বিক্ষোভ থামাতে রাজি নয় গণতন্ত্রকামীরা৷
সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এএইচ


oranjee