ঢাকা, রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ |

 
 
 
 

ক্রোয়েশিয়ায় নির্যাতনের শিকার বাংলাদেশী, প্রতিবাদে অস্টিয়ায় বিক্ষোভ

গ্লোবালটিভিবিডি ৩:২৭ অপরাহ্ণ, জুন ২২, ২০২০

ইনসেটে ক্রোয়েশিয়ার পুলিশের নির্যাতনের শিকার রুয়েল । ডানে অস্টিয়ায় প্রতিবাদ বিক্ষোভ। ছবি: সংগৃহীত

ইউরোপের দেশ ক্রোয়েশিয়ায় পুলিশি নির্যাতনের শিকার হয়েছেন রাসেদুজ্জামান রুয়েল (৩০) নামে বাংলাদেশি এক যুবক। বর্তমানে বসনিয়ার একটি হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন তিনি। ঘটনার প্রতিবাদে আন্দোলনে নেমেছে অস্ট্রিয়ার নাগরিকরা।

গতকাল ২১ শে জুন রোববার সকালে অস্টিয়ার রাজধানী ভিয়েনাতে সহস্রাধিক লোকজনকে নিয়ে ঘটনার বিচারের দাবিতে আন্দোলন করেছে কয়েকটি সামাজিক সংগঠন। এ সময় সবার হাতে ছিল রুয়েলের ক্ষতবিক্ষত ছবি সংবলিত ব্যানার ও ফেস্টুন।

রুয়েল হবিগঞ্জ সদর উপজেলার সুলতান মামদপুর গ্রামের ভিংরাজ মিয়ার ছেলে। তিনি গ্রিস ছাত্রলীগের সঙ্গে জড়িত ছিলেন বলে জানা গেছে।

রুয়েলের চাচাত ভাই মোতাহের হোসেন রিজু জানান, পরিবারের সচ্ছলতা ফেরাতে প্রায় আড়াই বছর পূর্বে স্বজনদের সহযোগিতায় তুরস্ক যান। উদ্দেশ্য স্বপ্নের দেশ ইতালিতে পাড়ি জমানো। সেখানে ১ বছর থেকে চলে যান গ্রিসে। বেশ ভালোই ছিলেন সেখানে। সম্প্রতি তিনি ইতালি পাড়ি জমাতে রওয়ানা হন স্লোভেনিয়া সীমান্ত দিয়ে। কিন্তু বিধিবাম। ১২ জুন সেখানেই তিনি পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। পুলিশ অমানবিক নির্যাতন শেষে তাকে সোপর্দ করে ক্রোয়েশিয়া পুলিশের নিকট। সেখানেও আরেক দফা নির্যাতনের শিকার হন। বর্তমানে তিনি বসনিয়ায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

পুলিশের অমানুষিক নির্যাতনের ফলে রুয়েলের মুখ এবং মাথায় ছিদ্র হয়ে রক্ত ঝরতে থাকে। বসনিয়ার রাজধানী সারায়েভোতে জার্মানি এক সংস্থার মাধ্যমে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

গুরুতর আহত রুয়েলের ভাই রাসেদুজ্জামান রকি জানান, সর্বশেষ ৪/৫ দিন আগে বেশ কয়েকজন ফোন করে জানান, তার ভাই পুলিশের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। ইতোমধ্যে রসিও(রাসেদুজ্জামান রুয়েল) ফোন করেন। তিনি শুধু বলেন, 'মাকে বল, আমি ভালো আছি।' নির্যাতন ও অসুস্থতার বিষয়ে কিছুই বলেননি। 

তিনি অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করে এবং ফেসবুকের মাধ্যমে জানতে পারেন তার ভাই নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এখন তার সঙ্গে আর যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছে না। অস্ট্রিয়ায় আন্দোলনের খবরও তিনি ফেসবুক থেকে অন্যদের মাধ্যমে জেনেছেন।

তথ্যসূত্রঃ ফ্রান্স বাংলা

জেইউ


oranjee