ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ |

 
 
 
 

দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণ পেঁয়াজ মজুদ রয়েছে : বাণিজ্যমন্ত্রী

গ্লোবালটিভিবিডি ৪:৫৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০

ফাইল ছবি

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানিয়েছেন, পেঁয়াজ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নাই, দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণ পেঁয়াজ মজুদ রয়েছে যা দিয়ে আগামী ৩ মাস স্বাভাবিকভাবেই চালানো যাবে। আর এ সময়ের মধ্যেই বিকল্প বাজার থেকে পেঁয়াজ আমদানি করে সরবরাহ স্বাভাবিক করা যাবে।

আাজ বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ভারতে আজ বন্ধ করলেও এরইমধ্যে ইজিপ্ট, মিয়ানমার, নেদারল্যান্ড, চায়নাসহ বেশ কিছু দেশে পেঁয়াজ আমদানির জন্য যোগাযোগ করা হচ্ছে। এক মাসের মধ্যে পূর্বের মূল্যে পেঁয়াজের দাম নিয়ে আসা হবে। তবে এ সময়টুকুর অপেক্ষায় না থেকে ক্রেতারা হুমড়ি খেয়ে পড়াতেই সিন্ডিকেটে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে বলেও জানান তিনি।

টিপু মুনশি বলেন, টিসিবিকেও সরাসরি পেঁয়াজ কেনার অনুমতি দেয়া হয়েছে। বর্ডারের যেসব পেঁয়াজ আটকে রয়েছে সেগুলো ছাড়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। অসাধু ব্যবসায়ীদের অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি। একসাথে বেশি পরিমাণ পেঁয়াজ না কেনারও আহ্বান জানান তিনি।

পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই ভারত গত মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) হঠাৎ করে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এরপর ২৪ ঘণ্টা পার না হতেই দেশের বাজারে পেঁয়াজের কেজি ১০০ টাকা ছুঁয়ে ফেলে।

অভ্যন্তরীণ বাজারে মূল্য বৃদ্ধি ও মজুদে ঘাটতির কারণে গত বছর এই সেপ্টেম্বরেই প্রথমে পেঁয়াজের রপ্তানি মূল্য বৃদ্ধি এবং পরে রপ্তানি বন্ধ করেছিল ভারত। এরপর বাংলাদেশের বাজারে হু হু করে বাড়তে থাকে পেঁয়াজের দাম, ৫০-৬০ টাকা কেজি দামের পেঁয়াজ বিক্রি হয় ২৫০-৩০০ টাকায়।

পরে মিয়ানমার, পাকিস্তান, চীন, মিশর, তুরস্কসহ বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি করে পরিস্থিতি সামাল দেয়ার চেষ্টা করে সরকার। 

এমএস/জেইউ

 


oranjee