ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট ২০২০ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৭

 
 
 
 

কাঁচা চামড়ার দাম এবারো কম, বিপাকে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা

গ্লোবালটিভিবিডি ১:২২ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ০২, ২০২০

ছবিঃ সংগৃহীত

দাম নির্ধারণ ও রপ্তানির ঘোষণা দেওয়ার পরও এবারের কোরবানির পশুর চামড়ার দাম বিপর্যয় ঠেকানো যায়নি। রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় চামড়া কেনা-বেচা হলেও দাম না পাওয়ায় অভিযোগ করেছেন বিক্রেতারা। এদিকে, আড়তগুলোতে চামড়ার দাম একেবারেই কম। এতে বিপাকে পড়েছেন মৌসুমী ব্যবসায়ীরা।

গতকাল শনিবার দুপুর থেকেই পাড়া মহল্লায় চামড়া সংগ্রহ শুরু করেন মৌসুমী ব্যবসায়ীরা। তবে, অন্য বছরের তুলনায় এ বছর খুচরা ব্যবসায়ীর সংখ্যা একেবারেই কম। এর পরও সরকার নির্ধারিত দামে কেউই কাঁচা চামড়া কিনছেন না বলে জানিয়েছেন কোরবানী দাতারা।

এদিকে, প্রতি বছর ঈদ উল আযহায় কোরবানির পশুর চামড়া সংগ্রহ করতো বিভিন্ন মাদ্রাসা ও দাতব্য সংস্থার প্রতিনিধিরা। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এ বছর কাউকেই দেখা যায়নি। ফলে যে সকল কোরবানী দাতারা চামড়া দান করতেন তারা পড়েছেন বিপাকে। কাঁচা চামড়া বেশিক্ষণ ফেলে রাখলে নষ্ট হয়ে যায় বিধায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন তারা।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে মাদরাসাগুলো বন্ধ থাকা এবং গত বছর চামড়া বিক্রি নিয়ে বিপাকে পড়ায় এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে, সাভারের আমিনবাজার ও রাজধানীর সাইন্সল্যাব অস্থায়ী আড়তে চামড়া কেনা বেচা শুরু হয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় মৌসুমী ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে চামড়া সংগ্রহ করেছেন ব্যবসায়ীরা।

এদিকে, দেশের সবচেয়ে বড় কাঁচা চামড়ার আড়ত পোস্তায়ও চামড়ার কাঙ্খিত দাম মিলেনি। আড়তদাররা সিন্ডিকেট করে চামড়া কেনার কারণে দাম গত বারের চেয়েও কম বলে অভিযোগ করেছেন পাইকাররা।

কাঁচা চামড়া ব্যবসায়ী সমিতির নেতারা জানালেন, ট্যানারি মালিকরা বকেয়া টাকা না দেয়ায় ৩০ শতাংশের বেশি চামড়া কেনা সম্ভব হবে না।

অন্যদিকে, কোরবানির পশুর চামড়া কেনা-বেচা নিয়ে যে কোনো সমস্যা সমাধানে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। চামড়া সংরক্ষণ, বেচা-কেনা ও পরিবহণ সংক্রান্ত পরিস্থিতির সমাধান দেবে এই সেল।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কন্ট্রোল সেলে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করছেন চারজন কর্মকর্তা। তাদের মোবাইল ফোন নম্বর ০১৭১১৭৩৪২২৫, ০১৭১৬৪৬২৪৮৪, ০১৭১৩৪২৫৫৯৩ এবং ০১৭১২১৬৮৯১৭।

এ বছর গরুর চামড়া ঢাকায় প্রতি বর্গফুট ৩৫ থেকে ৪০ টাকা এবং ঢাকার বাইরে ২৮ থেকে ৩২ টাকা দাম নির্ধারণ করে সরকার। এছাড়া প্রতি বর্গফুট খাসির চামড়ার দাম নির্ধারণ করা হয় ১৩ থেকে ১৫ টাকা।

এমএস/জেইউ


oranjee