ঢাকা, সোমবার, ১ জুন ২০২০ | ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

 
 
 
 

ট্যাক্স দিয়ে বৈধ হলো ১৮ লাখ ভরি ‘অবৈধ’ স্বর্ণ

গ্লোবালটিভিবিডি ১২:০৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৩, ২০১৯

ফাইল ছবি

দেশব্যাপী অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করতে সরকারের দেওয়া সময়সীমা ৩০ জুনের মধ্যে সারাদেশে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের হাতে থাকা ১৮ লাখ ভরি অবৈধ স্বর্ণ বৈধ হয়েছে। প্রতি ভরি স্বর্ণ বৈধ করতে ১ হাজার টাকা করে আয়কর পরিশোধ করতে হয়েছে। সেই হিসেবে ১৮ লাখ ভরি স্বর্ণ বৈধ হওয়ার মাধ্যমে সরকার ১৮০ কোটি টাকা আয়কর পেয়েছে। এর বাইরে ডায়মন্ড ও রুপা মিলিয়ে আরো তিন কোটি টাকা আয়কর পাওয়া গেছে।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সূত্রে জানা গেছে, ভরিতে এক হাজার টাকা কর দিয়ে চোরাই পথে আসাসহ সব ধরনের অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করার সুযোগ দেয় এনবিআরের আয়কর বিভাগ। এছাড়া, প্রতি ক্যারেট ডায়মন্ড ৬ হাজার টাকা ও প্রতি ভরি রৌপ্য ৫০ টাকা কর দিয়ে বৈধ করা হয়েছে। আয়কর বিভাগ এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে। প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী গত ৩০ জুন পর্যন্ত এ সুযোগ দেওয়া হয়। স্বর্ণ বৈধ করতে ব্যবসায়ীদের উত্সাহিত করতে এর মধ্যে রাজধানী ঢাকাসহ আটটি বিভাগীয় শহরে স্বর্ণ মেলারও আয়োজন করা হয়।

সূত্র জানিয়েছে, বাসাবাড়িতে কিংবা ব্যক্তিগতভাবে ব্যবহারের জন্য থাকা স্বর্ণ অবৈধ হিসেবে গণ্য হবে না। এই শর্ত প্রযোজ্য হবে ব্যবসায়ী, মহাজনদের কাছে মজুত থাকা স্বর্ণের ক্ষেত্রে।

স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস) কাছে এখনো দেশব্যাপী স্বর্ণ বৈধ করার তথ্য আসেনি বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সহ-সভাপতি এনামুল হক খান। তিনি বলেন, যারা কর দিয়ে বৈধ করেছে, এখন থেকে তারাই ব্যবসা করতে পারবে। এত প্রচার-প্রচারণার পরও যারা স্বর্ণ বৈধ করার উদ্যোগ নেয়নি, তাদের উদ্দেশ্য খারাপ। বাজুস বৈধ ব্যবসায়ীদের পক্ষেই কাজ করবে।

এএইচ


oranjee