ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ |

 
 
 
 

কুষ্টিয়ায় জালিয়াতি করে সম্পত্তি দখলের চেষ্টা, জড়িত রাঘব বোয়াল

গ্লোবালটিভিবিডি ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০

ফাইল ছবি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ায় জালিয়াতি করে এনআইডি বানিয়ে ১৩ কোটি টাকার সম্পত্তি হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টার ঘটনায় নেতৃত্ব দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগ সহসভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাজি রবিউল ইসলাম। এই মামলায় আটককৃত হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী মহিবুল ইসলাম সোমবার কুষ্টিয়ার আদালতে ১৬৪ ধারায় দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে চাঞ্চল্যকর এই তথ্য দিয়েছেন।

মহিবুল জানান, জালিয়াতির মাধ্যমে রেজিস্ট্রি করে এই জমি নিলে কোনো সমস্যা হবে না বলে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাজি রবিউল আশ্বস্ত করেছিলেন মহিবুলকে। এ জন্য মহিবুল ৩০ লাখ টাকাও দেন হাজি রবিউলকে।

অভিযোগে প্রকাশ, একটি জালিয়াতচক্র কুষ্টিয়া শহরের মজমপুর মৌজার প্রায় ১৩ কোটি টাকা মূল্যের ২২ শতক জমির ভুয়া মালিক সেজে মাত্র ৭৭ লাখ টাকায় হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী মহিবুল ইসলামের নামে রেজিস্ট্রি করিয়ে দেয়। বর্তমানে এই জমির বাজারমূল্য আরো বেশি। ওই চক্র প্রকৃত মালিকের নামে ভুয়া এনআইডি বানিয়ে তার মাধ্যমে জমি রেজিস্ট্রি করিয়ে নেয়। এরপর মহিবুল জমি দখল করতে গেলে প্রকৃত মালিক টের পান।

পরে এই ঘটনায় জমির প্রকৃত মালিক শহরের থানাপাড়া এলাকার বাসিন্দা এম এম ওয়াদুদ ওই চক্রের ১৮ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। এই জালিয়াতির ঘটনায় অর্থ বিনিয়োগকারী হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী মহিবুল ইসলামকে গত রবিবার আটক করে পুলিশ।

মহিবুল সোমবার সকাল ১০টায় কুষ্টিয়া সদর আমলি আদালতের বিচারক দেলোয়ার রহমানের কাছে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

এই মামলায় এ পর্যন্ত ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এএইচ/জেইউ

 


oranjee