ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৬

 
 
 
 

রাজধানীতে চাকুরিপ্রত্যাশি এক তরুণীকে গণধর্ষণ: গ্রেফতার ১

গ্লোবালটিভিবিডি ৫:৫২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : চাকুরিপ্রত্যাশি এক তরুণীকে ইন্টারভিউর নামে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। 

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরে বাংলা নগর এলাকায় ওই তরুণীকে কোমল পানয়ীর সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য পান করিয়ে অচেতনের পর গণধর্ষণ করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ ফাহিম আহমেদ ফয়েজ নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে। ফয়েজকে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার তথ্যানুযায়ী জানা যায়, প্রায় এক বছর আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে ওই তরুনীর সাথে নাহিদ পাটোয়ারী (৩২) নামে এক ব্যক্তির পরিচয় হয়। গত ২৭ আগস্ট(মঙ্গলবার) দুপুর ২টার পর মোবাইলে কল করে ডাকা হয় তরুণীকে। ইন্টারভিউ বোর্ডে ডেকে দুই একটি প্রশ্নের পরই সিগারেট আর ওয়াইন অফার করা হয়। তাতে না করলে কৌশলে কোকাকোলার সাথে ওয়াইন খাওয়ানোর পর তরুণীকে অজ্ঞান করা হয়। এরপর প্রথমে ফাহিম আহমেদ ফয়েজ (৩০) ও পরে নাহিদ পাটোয়ারী (৩২) ধর্ষণ করে। জ্ঞান ফিরে পাওয়ার পর হাতেপায়ে ধরে অনুরোধ করে বাসায় ফেরেন চাকরিপ্রত্যাশী তরুণী। গত মঙ্গলবার (২৭) বিকেল ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে রাজধানীর শেরেবাংলা থানাধীন ৩নং সড়কের ৩৫/১/বি ভবনের ৫তম তলায় হেল্থ ভিশন নামে এক অফিস কাম বাসায় চাকরির ইন্টারভিউ দিতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হন ওই তরুণী।

ঘটনার পর বুধবার রাতে ফাহিম আহমেদ ফয়েজ (৩০) এবং নাহিদ পাটোয়ারী(৩২) নামে অভিযুক্ত দুই জনের নাম উল্লেখ করে শেরেবাংলা নগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ৪৯।

গণধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়েরের পর গত রাতেই জড়িত অভিযোগে ফাহিম আহমেদ ফয়েজকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শেরেবাংলা নগর থানার ওসি জানে আলম গ্লোবালটিভি অনলাইনকে বলেছেন, এ ঘটনায় অভিযুক্ত নাহিদ নামে আরেক আসামিকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। তবে আরেক অভিযুক্ত নাহিদ পাটোয়ারী পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

পুলিশ জানিয়েছে, ৫ম তলার ওই কক্ষটি পরিবার নিয়ে থাকার জন্য ভাড়া নিয়েছিলেন ফয়েজ কিন্তু সেখানে তারা বাসার পাশাপাশি অফিসও চালিয়ে আসছিল। হেপাটাইসিস বি টিকা বিক্রি ও বিভিন্ন হাসপাতালে সরবরাহ করতো বলে জানান তিনি।

শেরেবাংলা নগর থানার ওসি বলেন, ভুক্তভোগী ওই তরুণীকে রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে ধর্ষণের আলামত পরীক্ষার জন্য। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হতে ঘটনার ওই ভবনের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পলাতক নাহিদকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

এমএইচএন/এমএস


oranjee

আরও খবর :