ঢাকা, বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০২০ | ৮ মাঘ ১৪২৬

 
 
 
 

গ্লোবাল টিভি অ্যাপস

ঢাকা

সিএনসি-সৈয়দ আলী আহসান পদক পেলেন ৪ গুণীজন

গ্লোবালটিভিবিডি ৩:২৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯

ছবিঃ সংগৃহীত

সৈয়দপুর থেকে সংবাদদাতা: 'এসো নানা আলোর মাঝে নিজের আলো খুঁজি'-এই প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরে সেন্টার ফর ন্যাশনাল কালচার (সিএনসি) আয়োজিত জাতীয় অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান স্মরণে গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলার ইকো হেরিটেজ রিসোর্টে বুধবার আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর চামড়া-শিল্প বিষয়ক সাবেক পরামর্শক, বীর মুক্তিযোদ্ধা, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এবং সিএনসির সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল মালেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ, সৈয়দপুর মহাবিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যক্ষ ও বিশিষ্ট লেখক হাফিজুর রহমান এবং লেখক, প্রকাশক ও সিএনসির ট্রাস্টি এমদাদুল হক চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, জাতীয় অধ্যাপক মনীষী সৈয়দ আলী আহসান ছিলেন ভিন্নমাত্রার একজন শ্রেষ্ঠ মুক্তিযোদ্ধা, তাঁর কালের প্রাজ্ঞ অভিভাবক। দেশের সব সরকারই তাঁর উপদেশ ও পরামর্শ গ্রহণ করেছেন। তিনি শুধু জ্ঞান বিতরণ করেননি, অবারিতভাবে সঞ্চার করেছেন জ্ঞান ও প্রজ্ঞা। প্রত্যাদিষ্ট বিবেচনায় ও অর্জিত জ্ঞানের অকুণ্ঠ মিলন ঘটেছিল তাঁর মধ্যে। বিবেক বুদ্ধিসম্পন্ন স্বচ্ছ এই পণ্ডিত ব্যক্তির তুলনা মেলা ভার।

অনুষ্ঠানে সমাজসেবায় বিশেষ অবদান রাখায় সিএনসি-সৈয়দ আলী আহসান পদক পান সৈয়দপুর পৌর মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার। তিনি দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে পৌরসভার মেয়র, উপজেলা চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে সৈয়দপুর-কিশোরগঞ্জ অঞ্চলের জনতার জীবনমান উন্নয়নসহ নানামুখী সমাজসেবা ও শিক্ষামূলক কর্মকান্ড পরিচালনার মাধ্যমে অসাধারণ অবদান রেখে চলেছেন। তাঁর সাথে আরো ৩ জন স্থানীয় বরেণ্য ব্যক্তিকে জীবনব্যাপী মননশীলতার ক্ষেত্রে
আরো পদক প্রদান করা হয় অধ্যক্ষ সাবিনা সালাম, মুফতি মইনুল ইসলাম এবং চারণকবি আবুল হোসেন আদানী(মরণোত্তর) প্রমুখকে।

অনুষ্ঠানে সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন কবি ও সাহিত্য সংগঠক আকমল সরকার রাজু।

এএইচ/জেইউ

 


আরও পড়ুন

oranjee

আরও খবর :