ঢাকা, রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১ |

 
 
 
 

কবি জীবনানন্দ দাশের ১২৩তম জন্মদিন আজ

গ্লোবালটিভিবিডি ১২:২১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২১

ফাইল ছবি

কবি জীবনানন্দ দাশের ১২৩তম জন্মদিন আজ। ১৮৯৯ সালের আজকের এই দিনে তিনি বরিশালে জন্মগ্রহণ করেন।

জীবনানন্দ দাশের বাবা সত্যানন্দ দাশ ছিলেন স্কুলশিক্ষক। মা কুসুমকুমারী দাশ সাংসারিক কাজের ফাঁকে ফাঁকে কবিতা লিখতেন। মায়ের কাছ থেকেই সাহিত্যচর্চা ও কবিতা লেখার প্রেরণা পান জীবনানন্দ। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে জীবনানন্দ ছিলেন সবার বড়। তাঁর ডাকনাম ছিল মিলু।

১৯০৮ সালের জানুয়ারিতে আট বছরের মিলুকে ব্রজমোহন বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে ভর্তি করানো হয়। ১৯১৯ সালে কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে ইংরেজিতে অনার্স এবং এর দুই বছর পর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ ডিগ্রি লাভ করেন তিনি। পরে তিনি আইন বিষয়ে পড়াশোনা শুরু করলেও তা শেষ করেননি।

জীবনানন্দ দাশের ৫৫ বসন্তের জীবনটি কেটেছে চরম দারিদ্র্য ও সংগ্রামের মধ্য দিয়ে। তাঁর পেশা মূলত শিক্ষকতা হলেও কর্মজীবনে স্বাচ্ছন্দ্যের সঙ্গে কোথাও থিতু হতে পারেননি। তিনি শিক্ষকতা করেছেন বাংলাদেশ ও ভারতের অনেকগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে।

কবি জীবনানন্দ দাশের উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ- ঝরা পালক, ধূসর পাণ্ডুলিপি, বনলতা সেন, মহাপৃথিবী, সাতটি তারার তিমির, রূপসী বাংলা, বেলা অবেলা কালবেলা। তাঁর মৃত্যুর পরে প্রকাশিত হয় মাল্যবান ও সতীর্থ নামে দুইটি উপন্যাস।

১৯৫৪ সালের ১৪ অক্টোবর কলকাতার বালিগঞ্জে এক ট্রাম দুর্ঘটনায় আহত হয়ে ছয় দিন পর স্থানীয় শম্ভুনাথ পণ্ডিত হাসপাতালে পরলোকগমন করেন কবি জীবনানন্দ দাশ।

এএইচ/জেইউ 


oranjee