ঢাকা, বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১ |

 
 
 
 

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে চয়নিকাকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

গ্লোবালটিভিবিডি ৯:৩৭ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ০৭, ২০২১

চয়নিকা ও পরীমনি। ফাইল ছবি

অভিনেত্রী পরীমনির বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলার তদন্তভার গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) থেকে সিআইডিতে স্থানান্তর করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে চলচ্চিত্র নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীকে তাঁর মুখোমুখি করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এর আগে সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর পান্থপথ থেকে চয়নিকাকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রাত ১১টায় তাঁকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

পৃথক ঘটনায় পরীমনির কস্টিউম ডিজাইনার জুনায়েদ করিম জিমিকেও শুক্রবার রাতে আটক করা হয়েছে।

এদিকে পরীমনির সার্বক্ষণিক সঙ্গী কয়েকজনকে খুঁজছে ডিবি পুলিশ। জিমিসহ কথিত বন্ধু তুহিন সিদ্দিকী অমি, ছোট বোন পরিচয় দানকারী বনিসহ টেলিভিশনের এক কর্মী পরীমনির সঙ্গেই থাকতেন। গত ৯ জুন বোট ক্লাবে হাতাহাতির ঘটনায় তাঁরাই উসকানি দিয়ে পরীকে দিয়ে পরিকল্পিতভাবে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ তোলেন বলে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

বোট ক্লাবের ঘটনায় পরীমনিকে সহায়তা দেয়া চলচ্চিত্র নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীকে আটক করে ডিবি। ডিবির পক্ষ থেকে বলা হয়, চয়নিকাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়।

রাতে ডিবির যুগ্ম কমিশনার হারুন-অর-রশিদ বলেন, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে চয়নিক চৌধুরীকে রাত ১১টার দিকে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়েছে। পরীমনির মামলা তদন্তে বারবার নাম আসায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চয়নিকা চৌধুরীকে আটক করা হয়েছিল। তদন্তের প্রয়োজনে তাঁকে আবারো জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।

তবে আটক হওয়ার আগে চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘পরীমনির সঙ্গে আমার পেশাগত একটি ভালো সম্পর্ক। ও আমাকে মা বলে। এর বাইরে তার ব্যক্তিগত বিষয় সম্পর্কে আমার জানা নেই।’

এএইচ/জেইউ 

 


oranjee