ঢাকা, সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ |

 
 
 
 

কিংবদন্তি সুরকার আলাউদ্দিন আলী লাইফ সাপোর্টে

গ্লোবালটিভিবিডি ২:০৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৮, ২০২০

ছবি- সংগৃহীত

বরেণ্য গীতিকার ও সুরকার আলাউদ্দিন আলী দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ। গেল কয়েক মাস ধরে বাড়িতেই চলছিল তাঁর চিকিৎসা। হঠাৎ, শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে তাঁকে।

আলাউদ্দিন আলীর ছেলে শওকত আলী রানা জানিয়েছেন, আজ শনিবার (৮ আগস্ট) ভোর পৌনে পাঁচটায় বাবাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শওকত আলী রানার ভাষ্য, ভোরের দিকে বাবার শরীর খুব বেশি খারাপ হয়ে পড়ে। তখনই তাঁকে মহাখালীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যাই। শ্বাসকষ্টের তীব্র সমস্যা থাকায় চিকিৎসকরা লাইফ সাপোর্টে নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

হাসপাতালটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আশীষ কুমার চক্রবর্তী গণমাধ্যমকে জানান, ‘আলাউদ্দিন আলী সাহেবের স্ত্রী আমাদের ভোর রাতে ফোন করে জানান যে, উনার শরীরের অবস্থা খুব খারাপ। তখনই আমরা অ্যাম্বুলেন্স পাঠিয়ে তাঁকে হাসপাতালে আনি। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁর শ্বাসকষ্টের সমস্যা দেখে লাইফ সাপোর্টে রাখার পরামর্শ দেন।

আলাউদ্দীন আলী একাধারে সঙ্গীত পরিচালক, সুরকার, বেহালাবাদক ও গীতিকার। গান লিখে তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও পেয়েছেন। আলাউদ্দীন আলী বাংলা গান, বিশেষ করে বাংলা চলচ্চিত্রে অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান সৃষ্টি করেছেন। বহু গুণে গুণান্বিত এই মানুষটির জন্ম ১৯৫২ সালের ২৪ ডিসেম্বর, মুন্সীগঞ্জের বিক্রমপুরের টঙ্গীবাড়ী থানার বাঁশবাড়ী গ্রামে।

দেড় বছর বয়সে পরিবারের সঙ্গে ঢাকার মতিঝিলের এজিবি কলোনিতে চলে আসেন আলাউদ্দীন আলী। তিন ভাই, দুই বোনের সঙ্গে সেই কলোনিতেই বড় হন তিনি। সঙ্গীতে প্রথম হাতে খড়ি ছোট চাচা সাদেক আলীর কাছে। পরে ১৯৬৮ সালে যন্ত্রশিল্পী হিসেবে চলচ্চিত্র জগতে পা রাখেন। শুরুটা শহীদ আলতাফ মাহমুদের সহযোগী হিসেবে, পরে প্রখ্যাত সুরকার আনোয়ার পারভেজের সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করেন। বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানের বহু স্বনামধন্য শিল্পী তাঁর সুরে গান করেছেন।

আরকে/জেইউ


oranjee