ঢাকা, রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০ | ২৮ আষাঢ় ১৪২৭

 
 
 
 

ঢাকা রেঞ্জের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ভালো কাজের স্বীকৃতি পেলেন রেঞ্জের ২৭ কর্মকর্তাসহ ৩০ জন

গ্লোবালটিভিবিডি ১:০৪ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৯

মোয়াজ্জেম হোসেন নাননু : ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ঢাকা রেঞ্জের ২৭ কর্মকর্তা ও ৩ চৌকিদারকে পুরষ্কুত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান, বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) নির্বাচিত এসব পুলিশ সদস্যদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন। এর আগে ডিআইজি হাবিবুর রহমান তাঁর স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করেন।

সকাল সাড়ে ১০ টায় ঢাকা রেঞ্জের সম্মেলন কক্ষে মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় সেপ্টেম্বর মাসে নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নের প্রস্তুতি নিতে এবং পুলিশকে আরও জনমুখী করতে সকল কর্মকর্তাদেরকে সক্রিয় হতে নির্দেশনা দেন। তিনি গ্রেফতারি পরোয়ানা নিষ্পত্তি বৃদ্ধি পাওয়ায় সংশ্লিষ্ট জেলার পুলিশ সুপারদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। একইসাথে বর্তমানে বিরাজমান স্বাভাবিক আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে নিষ্ঠা, সততা ও পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালনের জন্য রেঞ্জের সকল পুলিশ সদস্যদের প্রতি আহবান জানান।

কর্মরত সদস্যদের কর্মকাণ্ডে গতিশীলতা বাড়াতে ভালো কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ সভায় মাসিক কর্মদক্ষতার ভিত্তিতে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ২৭ জন অফিসার/ফোর্সসহ ০৩ জন চৌকিদারকে পুরস্কৃত করা হয়। ঢাকা রেঞ্জের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে দেয়া বিজ্ঞপ্তিতে সেপ্টেম্বর/১৯ মাসে টাঙ্গাইল জেলার পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, বিপিএম রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার এবং টাঙ্গাইল জেলার (মধুপুর) সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামরান হোসেন রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার হিসেবে নির্বাচিত হন।

এছাড়া মসিক সভায় অক্টোবর/১৯ মাসের মাসিক অপরাধ পরিসংখ্যান নিয়ে বিস্তারিত আলোচনাসহ বিভিন্ন মামলা সংক্রান্তে দিক নির্দেশনা প্রদান করেন ডিআইজ হাবিবুর রহমান। বিজ্ঞপ্তিতে পর্যালচনায় দেখা যায়, সেপ্টেম্বর/১৯ মাসে ঢাকা রেঞ্জে ৩০৩৬টি মামলা রুজু হয়েছে। এর আগে আগস্ট/১৯ মাসের তুলনায় ৫৭টি মামলা বৃদ্ধি পেয়েছে ও সেপ্টেম্বর/১৮ মাসের তুলনায় ৩৮৩টি মামলা কমেছে। সেপ্টেম্বর/১৯ মাসে মাদকদ্রব্য উদ্ধার খাতে ১৫০০টি মামলা রুজু হয়েছে, যা আগস্ট/১৯ মাসের তুলনায় ৪০টি বৃদ্ধি পেয়েছে । এক্ষেত্রে সেপ্টেম্বর/১৮ মাসের তুলনায় ৪৬৮টি মামলা হ্রাস পেয়েছে। তাছাড়া, অস্ত্র উদ্ধার খাতে আলোচ্য মাসে ১৮টি মামলা রুজু হয়েছে, যা আগস্ট/১৯ মাসের তুলনায় ০৩টি মামলা হ্রাস ও আগস্ট/১৮ মাসের তুলনায় ২৬টি মামলা হ্রাস পেয়েছে। সেপ্টেম্বর/১৯ মাসে বিজ্ঞ আদালত হতে ১০ হাজার ৯৮৬টি গ্রেফতারী পরোয়ানার মধ্যে ২০ হাজার ৭০৯টি গ্রেফতারী পরোয়ানা তামিল অর্থ্যাৎ ৯৮২৩টি গ্রেফতারী পরোয়ানা তামিল বের্শি হয়েছে।

সভাপতি মহোদয়ের সম্মতিক্রমে অতিরিক্ত ডিআইজি (অপরাধ)মো. আসাদুজ্জামান, বিপিএম (বার) ঢাকা রেঞ্জ সভার কার্যক্রম পরিচালনা করেন। সভায় ঢাকা রেঞ্জের ১২টি জেলার পুলিশ সুপারসহ ঢাকা রেঞ্জ অফিসের অতিরিক্ত ডিআইজি (অপস এন্ড ইন্টেলিজেন্স) ও পুলিশ সুপাররা উপস্থিত ছিলেন।

এমএস


oranjee