ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ |

 
 
 
 

রাশিয়ার তৈরি ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু

গ্লোবালটিভিবিডি ৪:২০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১০, ২০২০

ফাইল ছবি

রাশিয়ার তৈরি করোনার ভ্যাকসিন ‘স্পুটনিক-ফাইভ’ মানব দেহে প্রয়োগ শুরু হয়েছে। চূড়ান্ত পর্যায়ে ৪০ হাজার স্বেচ্ছাসেবীর দেহে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হচ্ছে। এটি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই দেহে অ্যান্টিবডি তৈরি করছে বলে দাবি করেছে সংশ্লিষ্টরা।

রাশিয়ার তৈরি করোনাভাইরাসের ‘স্পুটনিক-ফাইভ’ ভ্যাকসিনটি স্বেচ্ছাসেবীদের ওপর প্রয়োগ শুরু হয়েছে। মস্কোর ডেপুটি মেয়র আনস্তাসিয়া রাকোভা এক বিবৃতিতে জানান, ২১ দিনের ব্যবধানে ভ্যাকসিনটির দু'টি ডোজ দেয়া হবে। তিনি বলেন, মোট ৪০ হাজার স্বেচ্ছাসেবীর দেহে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে। রাশিয়া ছাড়াও কয়েকটি দেশে ‘স্পুটনিক-ফাইভ’ ভ্যাকসিনের তৃতীয় এবং চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এদিকে, অস্ট্রেলিয়ার চিকিৎসা বিষয়ক সাময়িকী ‘দ্য ল্যানসেট’ এক গবেষণা প্রতিবেদনে জানিয়েছে ‘স্পুটনিক-ফাইভ’ ভ্যাকসিন মানবদেহে করোনার অ্যান্টিবডি তৈরি করতে সক্ষম। রুশ বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত ভ্যাকসিন নেয়া কারো দেহে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়নি।

রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা ও নিরাপত্তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন দেশ। ভ্যাকসিনটির পরীক্ষা পদ্ধতি ও মান নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের অনেক বিজ্ঞানী।

এদিকে, করোনা অতিমারির কারণে টিকাদান কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাওয়ায় শিশু মৃত্যু ঝুঁকি বেড়েছে বলে সতর্ক করেছে জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ।

এমএস/জেইউ


oranjee