ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই ২০২০ | ২৫ আষাঢ় ১৪২৭

 
 
 
 

রাউজানে করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু : দাফন করলো গাউসিয়া কমিটির স্বেচ্ছাসেবক টিম

গ্লোবালটিভিবিডি ৫:২৩ অপরাহ্ণ, মে ২৯, ২০২০

ছবি সংগৃহীত

নেজাম উদ্দিন রানা, রাউজান (চট্টগ্রাম) : যাদের সুখের জন্য সারাজীবন আরাম-আয়েশ বিসর্জন দিয়ে মাথার ঘাম পায়ে ফেলেছেন নিজের অন্তিম শয্যায় তাদের কেউ পাশে থাকবেনা এমনটি কি জীবদ্দশায় কখনো ভেবেছিলেন রাউজান পৌরসভা ৮নং ওয়ার্ডের আনচার আলী গোমস্তার বাড়ি নিবাসী মোহাম্মদ নাছের (৫১)। কিন্তু পরিণতিটা হলো এমন। করোনা উপসর্গ নিয়ে মোহাম্মদ নাছেরের মৃত্যু হলে করোনা সংক্রমণের ভয়ে লাশ দাফন কাজে তার পরিবারের সদস্য ও স্বজনরা এগিয়ে না আসায় গাউসিয়া কমিটির স্বেচ্ছাসেবক টিমকে খবর দেন স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর অ্যাডভোকেট দীলিপ চৌধুরী। খবর পেয়ে দ্রুত স্পটে গিয়ে মৃত নাছেরের দাফন প্রক্রিয়ায় অংশ নেন উত্তর জেলা গাউসিয়া কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলহাজ্ব আহসান হাবিব চৌধুরী হাসান রাউজান ফকির হাট শাখার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ রাসেদ, ফকির হাট শাখার সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মুহাম্মদ এসকান্দর, প্রচার সসম্পাদক মুহাম্মদ শামসুল আলম গাউসিয়া কমিটি শিকদার ঘাটা ইউনিট শাখার সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ আবদুল জব্বার, উপজেলা গাউসিয়া কমিটির সহ দপ্তর সম্পাদক এরফান উদ্দিন চৌধুরী মারুফ, সুলতান পুর ইউনিয়ন উত্তর শাখার প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ এরশাদ। মৃত ব্যক্তির গোসল দিয়ে কাফনের কাপড় পরিধান করে স্থানীয় ফকির মোহাম্মদ চৌধুরী বাড়ি জামে মসজিদ মাঠে জানাজার নামাজে ইমামতি করেন আলহাজ্ব আহসান হাবিব চৌধুরী হাসান। জানাযা শেষে মোহাম্মদ নাছেরের দাফন কাজ সম্পন্ন করে বাড়ি ফেরেন গাউসিয়া কমিটির স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যরা। 

একই দিন রাউজান উপজেলার মোহাম্মদপুর এলাকায় আরেকজন করোনা রোগীর দাফন কাজে অংশ নেন গাউসিয়া কমিটির স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যরা।

করোনা সংক্রমণের ভয়ে নিজ পরিবারের সদস্য, স্বজন কিংবা এলাকার মানুষেরা যখন মৃত ব্যক্তির গোসল, দাফন-কাফনে এগিয়ে আসেনি সেই সময়ে মানবিকতার টানে সংক্রমণ ঝুঁকির বিষয়টি তোয়াক্কা না করে মৃত ব্যক্তির দাফনে এগিয়ে আসায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসিত হচ্ছে গাউসিয়া কমিটির স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যদের মানবিক কাজ।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে উত্তর জেলা গাউসিয়া কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলহাজ্ব আহসান হাবিব চৌধুরী হাসান বলেন, আজ (শুক্রবার) সকাল আটটার দিকে রাউজানে আমরা প্রথম একজনের লাশ দাফন করলাম। গাউসিয়া কমিটির কেন্দ্রীয় ঘোষণা অনুযায়ী করোনায় মৃতদের দাফনকাজ করার জন্য আমরা সব সময় প্রস্তুত আছি। এই কাজকে ভয় পাওয়ার কোন কারণ নেই। যেহেতু মৃত ব্যক্তি থেকে ভাইরাস ছড়ায় না, সবাইকে এই কাজে সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। গাউসিয়া কমিটির স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যদের জন্য সবাই দোয়া করবেন, যাতে করে করোনাকালীন সময়ে মানবিক কাজগুলোতে আরো বেশী সম্পৃক্ত থেকে মানুষের পাশে থাকতে পারি।

এমএস


oranjee