ঢাকা, শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০ | ১২ চৈত্র ১৪২৬

 
 
 
 

সঙ্গীতশিল্পী কনিকা কাপুর করোনায় আক্রান্ত

গ্লোবালটিভিবিডি ১:১৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০২০

ছবি- সংগৃহীত

বলিউড সঙ্গীতশিল্পী কনিকা কাপুর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সম্প্রতি লন্ডন থেকে ভারতে ফেরেন তিনি। যদিও বিদেশ থেকে ফেরার বিষয়টি তিনি নাকি গোপন করেছিলেন বলে অভিযোগ। জ্বর, সর্দি-কাশি এবং ফ্লুয়ের মতো উপসর্গ দেখা দিলে তিনি হাসপাতালে যান। নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।

বেবি ডল বা চিটিয়া কালাইয়া রে এর মতো জনপ্রিয় গানগুলো গেয়েছেন এই গায়িকা। লন্ডন থেকে ফিরে লক্ষ্ণৌ বাড়িতে ছিলেন তিনি। বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে তিনি প্রথম যার করোনা ধরা পড়েছে। লন্ডন থেকে ফেরার পর তিনি বিলাশবহুল একটি ৫ তারকা হোটলে পার্টি দেন। সেখানে অনেক ক্ষমতাবান মানুষ গিয়েছিলেন। এই বিষয়টা সামনে আসতেই মানুষ কনিকার দ্বায়িত্বহীনতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। কেন কোয়ারেন্টিনে না গিয়ে তিনি পার্টি করছিলেন? আতঙ্কে আছেন অনেকেই।

এ বিষয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম প্রশ্ন করলে কনিকা কাপুর বলেন, আমি আমার সন্তানদের সঙ্গে লন্ডনে ছিলাম। আমি নিয়মিত লন্ডন আর লক্ষ্ণৌতে যাতায়াত করি। মার্চের ৯ তারিখে এয়ারপোর্টে নামি। তখন আমাকে একটা ফর্ম ফিলাপ করতে হয়। সেখানে আমার জার্নির সব ইনফরমেশন দিতে হয়। সে সময় আমাকে চেক করা হয়। আমাকে কেউ বলেনি কোয়ারেন্টিনে যেতে। আমার শরীরে করোনার কোনও লক্ষণ ছিল না। আমি লন্ডন থেকে মুম্বাই হয়ে লক্ষ্ণৌ আসি। এখানে আমার বাবা মা রয়েছেন। আমি তাঁদের সঙ্গে দেখা করি। এখানে আমার নিজের বাড়িও রয়েছে। আমার ছোটবেলার এক বন্ধুর জন্মদিন ছিল। সেই জন্য একটা ছোট গেটটুগেদার হয়। যেখানে তাঁর বাবা মা, আমার বাবা মা ও সামান্য কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন। তেমন কোনও বড় পার্টি নয়। এর পর মার্চের ১৩ তারিখ আমার নিজের নিজেকে সন্দেহ হয়। যে আমার করোনা নেই তো। তখন আমি ফোন করে দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের আমার করোনা টেস্টের জন্য জানাই। টেস্টে পজিটিভ ধরা পড়ে। তবে আমাকে একবারের জন্যও কেউ হোম কোয়ারেন্টিনে যেতে বলেননি।

তবে সঙ্গীতশিল্পীর সঙ্গে সাক্ষাৎকারীরা বেশ আতঙ্কে আছেন।

আরকে


oranjee

আরও খবর :