ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

খুলনায় ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে নিহত ২, দুই হাজারেরও বেশি ঘর বিধ্বস্ত

গ্লোবালটিভিবিডি ৭:০৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১০, ২০১৯

আজিজুল হক জোয়ার্দ্দার, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা, খুলনা

খুলনা প্রতিনিধি : খুলনায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুল’র আঘাতে গাছ পড়ে দিঘলিয়ার সেনহাটি গ্রামের আলমগীর নামে এক ব্যক্তি ও দাকোপের প্রমিলা বিশ্বাস নামে ৫২ বছরের এক নারী মারা গেছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো ২জন। এছাড়া বুলবুলের আঘাতে খুলনার কয়রা ও দাকোপ উপজেলায় প্রায় দুই হাজার ২৬৫টি ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। পানিতে তলিয়ে গেছে পাঁচ শতাধিক পুকুর ও মাছের ঘের।

খুলনা জেলা প্রশাসন জানান, রোববার দুপুরের পর মংলা ও খুলনা সহ আশপাশ এলাকায় ১০ নম্বর বিপদ সংকেতের খবর ছড়িয়ে পড়ার পরপর উপকূলীয় অঞ্চল দাকোপ ও কয়রা উপজেলাবাসী আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়া শুরু করে। বিকাল থেকে দাকোপ, কয়রা, পাকইগাছা সহ খুলনা মহানগরীতে টাকা বর্ষণ শুরু হয়। সেই সাথে ঝড়ে হাওয়া বইতে থাকে। রাত ১২টার পর প্রচণ্ড ঘূর্ণিঝড় শুরু হয়। এতে দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে আঘাত হানা ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ তান্ডব চালায়। ঝড়ের আঘাতে খুলনা নগরসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় বিধ্বস্ত হয়েছে ২ হাজারেরও বেশি ঘরবাড়ি। ভারী বর্ষণের কারণে পানিতে তলিয়ে গেছে মাছের ঘের ও ফসলি জমি।

খুলনা জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আজিজুল হক জোয়ার্দ্দার জানান, বুলবুলের আঘাতে দাকোপ ও কয়রায় উপজেলাসহ খুলনায় ২ হাজার কাঁচা ও আধাপাকা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এখনো বৃষ্টি হচ্ছে, ঝড়ো হাওয়া আছে। তবে পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রশাসন তৎপর রয়েছে।

এমএকে/এমএস


oranjee