ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

 
 
 
 

দুর্গাপুরে পুনরায় নির্বাচনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

গ্লোবালটিভিবিডি ৮:৩৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৫, ২০১৯

সংগৃহীত ছবি

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি : নেত্রকোনার দুর্গাপুর সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের দলিল লিখক সমিতি’র নির্বাচন কমিশনের কারচুপি নির্বাচনের ফলাফল বয়কট ঘোষণা পূর্বক পুননির্বাচনের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ত্রি-বার্ষিক সাধারণ নির্বাচনে সম্পাদক পদের প্রার্থী মোমেন ঈবনে সাঈদ স্ট্যালিন।

শনিবার সকাল ১১টায় দুর্গাপুর প্রেসক্লাব সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত হয়ে এই সম্মেলন করেন তিনি।

তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ্য করেন, গত ২৯ সেপ্টেম্বর রোববার সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লিখক ও ভেন্ডার সমিতির ত্রি-বার্ষিক সাধারণ নির্বাচনে ভোট জালিয়াতি, অনিয়ম ও নির্বাচন কমিশনের বিমাতাসূলভ আচরণে নির্বাচন পরিচালনা করে ইচ্ছাকৃতভাবে ঐ প্রার্থীকে পরাজিত করা হয়েছে। ভোট গ্রহনকারী ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি এস.এম আবুল কাসেম চান মিয়া’র প্রত্যক্ষ যোগসাজসে পরিকল্পিতভাবে তাকে ফেল করানোর সকল প্রক্রিয়ায় লিপ্ত ছিল বলে তিনি জানান। এ সকল বিষয় উল্লেখ পূর্বক ৩০ সেপ্টেম্বর ভোটের জালিয়াতি, অনিয়ম প্রমাণ করার জন্যে ঐ কমিটির বরাবর একটি লিখিত আবেদন করলে ৩ অক্টোবর বিকাল ৪ ঘটিকায় ভোট পুনগণনা করা হলে তার পক্ষে ১টি ভোট যুক্ত হয়। বিধান না থাকা সত্ত্বেও ব্যালট পেপারে আহবায়ক ও নির্বাচন কমিশনারের নাম স্বাক্ষরও পাওয়া যায়। অন্যদিকে ব্যালট পেপারের মোড়ি এবং ব্যালটে ক্রমিক সংখ্যা দেওয়া হয়েছে এটিও একটি নীল নকশার অংশ। ভোটারদের সাথে প্রার্থীদের একটি মনোমালিন্য সৃষ্টি করার পায়তারাও বটে। একই পদে দুই রকম ব্যালট তৈরি করার ইতিহাস এই প্রথম চোখে পড়েছে। ৩ অক্টোবর বিকাল ৪ ঘটিকায় ভোট পুন:গণনা শেষে ওই কমিটি’র সদস্য এস.এম আবুল কাশেম চান মিয়া প্রকাশ্য দিবালোকে তার ভুলের জন্য জনসম্মুখে স্বীকার করেছেন। নীল নকশার নির্বাচনের ফলাফল বাতিল এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন দিনধার্য্য পূর্বক পুনরায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত করার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, এর অন্যথায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলেও সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন। এ সময় তার সাথে বেশ’কজন ভোটার উপস্থিত ছিলেন।

এমএস


oranjee