ঢাকা, রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

 
 
 
 

পাবনায় আন্ত:জেলা ডাকাতদলের ২ সদস্য গ্রেফতার

গ্লোবালটিভিবিডি ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৯

সংগৃহীত ছবি

পাবনা প্রতিনিধি : তালা ভেঙে চুরি, মোটরসাইকেল, ডাকাতি ইত্যাদি অপকর্মের সাথে জড়িত আন্ত:জেলা ডাকাতদলের ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পিবিআই (পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন) পাবনার একটি দল। 

মঙ্গলবার(৯ জুলাই) রাতে জেলার সুজানগর উপজেলার সাতবাড়িয়া থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন-সুজানগর উপজেলার চর ভবানীপুর গ্রামের মৃত জুনাই প্রাং এর ছেলে আরিফুল
ইসলাম ওরফে আরিফ (২৪) এবং ক্ষেতুপাড়া গ্রামের মুকুল হোসেনের ছেলে মান্নান ওরফে পান্না (২৬)।

পিবিআই জানায়, একটি ডাকাতি মামলার রহস্য উদঘাটন করতে গিয়ে পুলিশ তাদের গ্রেফতার ও তাদের চক্রের সন্ধান পায়। বুধবার (১০ জুলাই) দুপুরে পিবিআই, পাবনা জেলা প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তরিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, গত ২৫ মে রাতে সুজানগর উপজেলার হাসামপুর গ্রামে জনৈক সনত কুমার দাস এর বাড়ি দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়।

এ ঘটনায় সনত কুমার দাস (৬২) বাদি হয়ে সুজানগর থানার মামলা (নং-২০(০৫)২০১৯) দায়ের করেন। পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ পরে মামলাটি পিবিআইতে স্থানান্তর করে।

তিনি আরও জানান, মামলাটি তদন্তের নির্দেশনা পেয়ে উপ-পরিদর্শক (এসআই) সামরুল হোসেনের উপর গত ২৪ জুন মামলার তদন্তভার অর্পণ করা হয়। তদন্তভার পাওয়ার পর ১২ দিনের মাথায় এসআই সামরুল হোসেন এর নেতৃত্বে এসআই সবুজ আলীসহ পিবিআই-এর একটি টিম সুজানগর উপজেলার সাতবাড়িয়া এলাকায় এক বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ঘটনার সাথে জড়িত চক্রের দু’জনকে গ্রেফতার করেন।

এসআই সামরুল হোসেন জানান, তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় ডাকাত আরিফুল ইসলাম আরিফকে মঙ্গলবার রাতে গ্রেফতার করার পর তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী ডাকাত মান্নান ওরফে পান্নাকেও রাতেই গ্রেফতার করা হয়।
তিনি জানান, এ সময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত দুইটি লোহার রড, স্ক্রু ডাইভার ইত্যাদি
উদ্ধার করা হয়। তারা এসব দিয়ে ঘরের দরজা ও তালা ভেঙে থাকে। তালা ভেঙে ঘরে ঢোকাসহ তারা অস্ত্রের মুখে ডাকাতি কাজে জড়িত। তাদের দলে বিভিন্ন জেলার মোট ১০-১২ জন ডাকাত রয়েছে। এসব কথা তারা পুলিশের কাছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে। তারা সুজানগরের সনত কুমারের বাড়িতে ডাকাতি করার কথাও পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।

ডাকাত আরিফুল ইসলামের বরাত দিয়ে তদন্ত কর্মকর্তা জানান, ২৫ মে রাতে এ ডাকাত দলটি সনত কুমার দাসের বাড়ির গেটের উপর দিয়ে ভিতরে যায়। দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে ধালার অস্ত্র দিয়ে বাড়ির কয়েক সদস্যকে রক্তাক্ত জখম করে তারা। এরপর অস্ত্রের মুখে স্বর্ণের অলংকার, নগদ টাকা ইত্যাদি নিয়ে তারা পালিয়ে যায়। এর কয়েকদিন আগে তারা ওই বাড়ি রেকি করে আসে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সামরুল হোসেন আরও জানান, মামলার মূল রহস্য উদঘাটনসহ ডাকাতদের গ্রেফতার করার জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অনেক কৌশল অবলম্বন করে
তাদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তি মতে অন্যান্য ডাকাতদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

পিবিআই, পাবনা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মো. তরিকুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃতদের
বুধবার দুপুরে পাবনা আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এআইজে/এএইচ/এমএস


oranjee