ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬

 
 
 
 

চলন্ত বাস থেকে লাথি মেরে ফেলে দিয়ে গাড়ি চালালেন ঘাতক ড্রাইভার

গ্লোবালটিভিবিডি ১১:৩৮ পূর্বাহ্ণ, জুন ১০, ২০১৯

ছবি সংগৃহীত

চলন্ত বাস থেকে সালাউদ্দিন নামে এক যাত্রীকে প্রথমে লাথি মেরে ফেলে, পরে তার ওপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে হত্যা করেছে ঘাতক ড্রাইভার। রোববার দুপুরে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটেছে গাজীপুর সদর উপজেলার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বাঘেরবাজার এলাকায়।

নিহত ছালাউদ্দিন তার স্ত্রী পারুলকে নিয়ে বাঘেরবাজার এলাকায় ভাড়া থেকে একটি কারখানার গাড়ি চালাতো। নিহতের ছোট ভাই জামাল উদ্দিন জানান, ঈদের ছুটিতে সস্ত্রীক ময়মনসিংহের ফুলপুর শ্বশুরবাড়ি থেকে গাজীপুরে কর্মস্থলে ফেরার পথে আলম এশিয়ার একটি বাসে ভাড়া নিয়ে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায় এ ঘটনা ঘটে।

মাওনা হাইওয়ে থানার ওসি দেলোয়ার হুসেন বলেন, বাসের ভেতরে ‘ড্রাইভার’ পরিচয় দিয়ে সালাউদ্দিন ভাড়া কিছু টাকা কম রাখার জন্য অনুরোধ করে।

এই নিয়ে সালাউদ্দিন ও তার স্ত্রীর সঙ্গে চালকের সহযোগীর বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে চালকের সহযোগী লাথি মেরে সালাউদ্দিনকে ফেলে দেবে বাসের ভেতরে প্রকাশ্যেই হুমকি দেয়। ভয় পেয়ে সালাউদ্দিন তার ভাই জামালকে টেলিফোনে বাঘের বাজার বাসস্ট্যান্ডে এসে দাঁড়াতে বলেন।

পরে জামাল আরো ৫-৬ জন লোক নিয়ে বাঘের বাজার দাঁড়িয়ে থাকেন। সালাউদ্দিন ও তার স্ত্রীকে বহনকারী আলম এশিয়ার দ্রুতগামী বাসটি (ঢাকা মেট্রো-গ-১১-৬৩-৬৬) স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে থাকা স্বজনরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই লাথি মেরে সালাউদ্দিনকে বাস থেকে ফেলে দেয়।

কিন্তু তার স্ত্রীকে নিয়ে বাস চলে যেতে থাকে। স্ত্রীকে না নামিয়ে বাস চলে যেতে থাকলে সালাউদ্দিন সড়ক থেকে উঠে গাড়ির সামনে গিয়ে গতিরোধ করার চেষ্টা করেন। এ সময় স্বজনদের সামনে চালক বাসটি সালাউদ্দিনের ওপর উঠিয়ে দেয়।

বিষয়টি জয়দেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান সংবাদ মাধ্যমকে  বলেন, ঘাতক বাসটি আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে হত্যা মামলা প্রক্রিয়াধীন।

 

আরকে


oranjee