ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৬ বৈশাখ ১৪২৬

 
 
 
 

গ্লোবাল টিভি অ্যাপস

বিষয় :

ঢাকা

  • নুসরাত হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ৮ জনই গ্রেফতার
  • ফেনীর সোনাগাজীতে প্রবাসীর স্ত্রীকে গণধর্ষণ: গ্রেফতার ২
  • কক্সবাজারে দুদকের গণশুনানী শুরু
  • দিনাজপুরে বাসের ধাক্কায় বাবা ও মেয়েসহ নিহত ৩
  • চট্টগ্রামে চলন্ত প্রাইভেটকারে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ
  • রামু উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়নে কোটি টাকার হদিস নেই!
  • নুসরাত হত্যা: স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি আবদুর রহমান শরিফের

নুসরাত হত্যার ঘটনায় আসামি মো. শামীম গ্রেফতার

গ্লোবালটিভিবিডি ১:৩৭ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৬, ২০১৯

ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলার আসামি মো. শামীমকে (১৯)গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে শামীমকে সোনাগাজির চনচান্দিয়া গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়।

ফেনী পিবিআই-এর অতিরিক্ত বিশেষ পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

মনিরুজ্জামান বলেন, মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার মামলায় সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। সে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলীম পরিক্ষার্থী।

এ নিয়ে এখন পযন্ত নুসরাত হত্যাকাণ্ডে ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে ।

নুসরাত জাহান রাফি সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিমের পরীক্ষার্থী ছিলেন। ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ-দৌলার বিরুদ্ধে ওই ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠে। নুসরাতের মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে ২৭ মার্চ সোনাগাজী থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এরপর থেকেই মামলা তুলে নিতে বিভিন্নভাবে নুসরাতের পরিবারকে হুমকি দেওয়া হচ্ছিল। ৬ এপ্রিল সকাল ৯টার দিকে আলিম পর্যায়ের আরবি প্রথমপত্রের পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যান নুসরাত। এ সময় তাকে কৌশলে একটি বহুতল ভবনে ডেকে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। সেখানে তার গায়ে দাহ্য পদার্থ দিয়ে আগুন দেওয়া হয়।

বুধবার (১০ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নুসরাত মারা যান।

নুসরাতের গায়ে আগুন দেওয়ার ঘটনার পর গত ৮ এপ্রিল তার বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে সোনাগাজী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এমএস


oranjee