ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

 
 
 
 

ফেনীতে ইভিএমের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

গ্লোবালটিভিবিডি ৫:৪৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৭, ২০১৯

ছবি- সংগ্রহ

ফেনী প্রতিনিধি: আগামী ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপে ফেনী সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী এম আজহারুল হক আরজুর নির্বাচনী প্রচারণার গাড়ি ভাংচুর ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। বুধবার (২৭ মার্চ) সকালে ফেনী ধর্মপুর ইউনিয়নে তার নির্বাচনী অফিসে এই সংবাদ সম্মেলন করেন।

সদর উপজেলার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী এম আজহারুল হক আরজু সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ফেনী সদর উপজেলায় ইভিএমের মাধ্যমে প্রশাসন যেন গুণ্ডামুক্ত সুষ্ঠু নির্বাচন করেন। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে যারা এসব অনিয়ম করছেন তাদের প্রত্যাহারের দাবি জানান।

তিনি বলেন, তফসিল ঘোষণার পর থেকে চলছে ফেনীতে একতরফা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড। প্রতীক বরাদ্দের পর সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড আরো ভয়াবহ রূপ ধারণ করে।

তিনি বলেন, ফেনী মডেল থানার সামনে ট্রাংক রোডে তার ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলে, ৮টি মাইক ছিনতাই, ৪টি সিএনজি ভাংচুর, নির্বাচনী প্রধান কার্যালয়ে রাত আড়াইটায় বৃষ্টির মত গুলি করে তছনছ করা হয় এবং আমার কর্মী বাহিনী, সিএনজি ও গাড়ির ড্রাইভারদের ওপর হামলা করা হয়।

তিনি প্রকাশ্য দিবালোকে নির্বাচনী আচারণবিধি লংঘন হচ্ছে বলে জানান। তিনি বলেন, গত ২৩ ও ২৪ মার্চ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের যৌথ সভায় বলেন, আরজু যেখানে গণসংযোগ করতে যাবো, সেখান থেকে যাতে সুস্থভাবে না ফিরতে পারি সে নির্দেশ দেন। তারই সূত্রে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার সময় কাজিরবাগ ইউনিয়নের রানীরহাট বাজারে গণসংযোগ করতে যায়, তখন সদর সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর নির্দেশে আমাকে হত্যা করার জন্য আমার উপর নারকীয় হামলা চালায়।

তিনি সারা দেশের ন্যায় ফেনীতে ইভিএম পদ্ধতিতে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে ভোটাররা যাতে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে তার দাবি জানান।


একেএ/এমএস


oranjee