ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

 
 
 
 

বিসিবি ছাড়ার কারণ জানালেন সাকিব-মুশফিকদের গুরু

গ্লোবালটিভিবিডি ১২:৩৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০১, ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ ক্রিকেটে এক নামে যার পরিচিতি তিনি ফাহিম স্যার। কোচ, খেলোয়াড় থেকে শুরু করে কর্মকর্তাদের কাছেও তিনি ফাহিম স্যার। দেশের তারকা ক্রিকেটার থেকে শুরু করে উঠতি ক্রিকেটাররাও যার কাছ থেকে খালি হাতে ফেরেননি কখনও সেই ফাহিম স্যার আজ বিদায় নিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে।

১৯৮৮ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত কাজ করেছেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি)। এরপর ২০০৫ সালে যোগ দেন বিসিবিতে। এসময় তিনি কাজ করেছেন গেম ডেভেলপমেন্টে।

দীর্ঘ এই ১৪ বছরে কাজ করে গেছেন নিরলস ভাবে ক্রিকেটের মঙ্গলের জন্য। কার কোথায় সমস্যা সেসব ধরে দিয়েই থেমে থাকতেন না, হাতে-কলমে ভুল শুধরে দেয়ারও চেষ্টা করেছেন।

জাতীয় দল থেকে বাদ পড়লে বা খারাপ সময়ে নাজমুল আবেদীন ফাহিম স্যারই যেন ভরসা সাকিব, তামিম, মুশফিকদের। কিন্তু ২০১৭ সালে তাকে দায়িত্ব দেয়া হয় নারী দলের। গত দুই বছরে নারী দল এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে নাজমুল আবেদীনের হাত ধরেই। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাচাই পর্বেও উত্তীর্ণ হয়।

এরপরও তিনি কেন বিসিবিকে বিদায় বললেন তিনি? কারণ তো আছেই। আজ সোমবার বিসিবি কার্যালয়ে ঘটা করেই তাকে বিদায় জানান বোর্ড কর্ম-কর্তারা। ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। কেক কেটে, ক্রেস্ট দিয়েই তবে বিদায় দেয়া হয় তাকে।

বিদায়ী অনুষ্ঠান শেষে ফাহিম স্যার কথাও বলেন গণমাধ্যমের সঙ্গে। কেন বিদায় নিলেন জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আমি আমার কাজ উপভোগ করতে পারছিলাম না। আমার মূল কাজ কোচিং করানো। সেই জায়গা থেকে ধীরে ধীরে দূরে সরে গেছি। আমি খেলোয়াড়দের কাছেই থাকতে চেয়েছি, সেটি ছেলেদের ক্রিকেট হোক কিংবা মেয়েদের। কিন্তু শেষদিকে খেলোয়াড়দের থেকে আমার দূরত্বটা বেড়ে যায়। আর এই দূরত্ব কমাতেই এমন সিদ্ধান্ত।
আরও জানান, অনেকেই অনেক সময় তার সঙ্গে ঠিকভাবে আচরণ করেননি বলেও এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আরকে

 


oranjee