ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

বাংলাদেশকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টিতে আফগানদের নতুন রেকর্ড

গ্লোবালটিভিবিডি ১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

সংগৃহীত ছবি

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে ২৫ রানে হারিয়েছে আফগানরা। আর বাংলাদেশকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টিতে নতুন রেকর্ড করেছে আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে প্রথম দল হিসেবে টানা ১২ ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে রশীদ খান ও মোহাম্মদ নবীরা।

টি-টোয়েন্টি সংস্করণে আফগানিস্তান বরাবরই দারুণ ক্রিকেট খেলে। এ পর্যন্ত ৭৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে জয় পেয়ে ৫১টি ম্যাচে।

রবিবার মিরপুর শে-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় আফগানরা। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও শেষ দিকে এসে তা সামলে নেয় আফগান ব্যাটসম্যানরা। শুরুতে স্কোর বোর্ডে ৪০ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারায়। ৪ উইকেট হারিয়ে ৬ ওভারে ৪১ রান তোলে কোনঠাসা হয়ে পড়া আফগানিস্তান। প্রথম ১০ ওভারে ৬০ রান সংগ্রহ করে।

পঞ্চম উইকেট জুটিতে আসগর আফগানের সঙ্গে জুটি গড়েন মোহাম্মদ নবী। এই জুটিতেই বড় সংগ্রহ পায় আফগানিস্তান। ৫৪ বলে ৭ ছক্কা এবং ৩ চারে অপরাজিত ৮৪ রান করেন মোহাম্মদ নবী। আর ৩৭ বলে ৪০ রান করেন আসগর আফগান।

বাংলাদেশের হয়ে ৪ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট শিকার করেন সাইফউদ্দিন। চার ওভার বল করে ১৮ রান দিয়ে ২ উইকেট শিকার করেন সাকিব আল হাসান।

আফগানিস্তানের দেয়া ১৬৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম বলেই সাজঘরের পথ ধরেন ওপেনার লিটন দাস। দলীয় ১১ রানে ফেরেন মুশফিক। দলীয় ৩১ রানে এবং ব্যক্তিগত ১৫ রানেই আউট হয়ে দলকে আরও চাপে সাজঘরের পথ ধরেন সাকিব। সাকিব আউট হওয়ার পরপরই দলীয় ৩২ রানে স্পিনে বিভ্রান্ত হন সৌম্য সরকার। গেল ম্যাচে চার রান করার পর আজকের ম্যাচে আফগানদের বিপক্ষে গোল্ডেন ডাক পেলেন সৌম্য সরকার।

এরপর, দলকে বিপদ থেকে উদ্ধারে আসেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তাকে সঙ্গ দেন সাব্বির রহমান। এই জুটি থেকে আসে ৫৮ রান। দলীয় ৯০ রানে পঞ্চম উইকেটের পতন হয়। ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৪৪ রান করে আউট হয়ে ফেরেন মাহমুদউল্লাহ। এর ঠিক পাঁচ রান পরেই আউট হন সাব্বির রহমান। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম এ সংস্করণে ২৭ বল থেকে ২৪ রান করেন সাব্বির।

শেষ দিকে গতম্যাচের জয়ের নায়ক আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত এবং মোস্তাফিজরা রানের ব্যবধান কিছুটা কমাতে পারলেও হার এড়াতে পারেনি।

এমএস


oranjee