ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯ | ৬ ভাদ্র ১৪২৬

 
 
 
 

তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ মেসি!

গ্লোবালটিভিবিডি ১১:৫২ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ০৩, ২০১৯

ফাইল ছবি

আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে তিনটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে পারছেন না লিওনেল মেসি।

শুধু প্রীতি ম্যাচই নয়, চলতি বছর জাতীয় দলের হয়ে হয়তো আর মাঠেই নামা হবে না তার।

আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে আগামী তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে মেসিকে। সেই সঙ্গে তাকে জরিমানা গুনতে হবে ৫০ হাজার ডলার।

দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমিবল এই নিষেধাজ্ঞা আদেশ জারি করেছে মেসির ওপর।

এবারের কোপা আমেরিকায় বেশ কিছু বিষ্ফোরক মন্তব্য করায় তাকে এমন শাস্তি ভোগ করতে হচ্ছে এ বার্সেলোনা অধিনায়কের।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরে চিলি, জার্মানি ও মেক্সিকোর বিপক্ষে রয়েছে মেসিকে ছাড়াই মাঠে নামবে নীল-সাদার জার্সিরা।

তবে এই নিষেধাজ্ঞা আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করার সুযোগ রয়েছে মেসির। আগামী সাত দিনের মধ্যে আপিল করতে বলা হয়েছে মেসিকে।

এবারের কোপা আমেরিকা কাপে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি লিওনেল মেসি। যদিও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের মাঠে চেষ্টার কোনো ত্রুটি ছিল না তার। প্রতিটি ম্যাচেই জয়ের জন্য মরিয়া ছিলেন তিনি।

তবে সেমিফাইনালে বেশ সমালোচিত হন মেসি। সে ম্যাচে হারের পর নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি তিনি।

এরপর তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির বিপক্ষে লাল কার্ড দেখলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়।

সেদিন করিন্থিয়াস এরেনায় চিলির বিপক্ষে ম্যাচের ৩৭ মিনিটের মাথায় পাওলো দিবালার বাড়ানো বল দখলে চিলির ডিফেন্ডার গ্যারি মেডেলের সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে মেসির। মেডেল বারবার ধাক্কা মারতে থাকলেও মেসি ছিলেন নির্লিপ্ত।
তবু মেডেলকে ফাউল করতে উৎসাহিত করার অপরাধে এবং মাথা দিয়ে আঘাত করার ইঙ্গিত করায় মেডেলের সঙ্গে মেসিকেও লাল কার্ড দেখান রেফারি।

ওই ম্যাচে আর্জেন্টিনা জিতে যায়। তবে সেদিন ক্ষোভ প্রকাশ করতে গিয়ে পদক নিতে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চেই ওঠেননি আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

তবুও ক্ষোভ প্রশমিত হয়নি মেসির। ক্ষুব্ধ মেসি এরপর করেন বিস্ফোরক এক মন্তব্য।

সেদিন তিনি সরাসরি দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল ফেডারেশনের (কনমেবল) দিকে আঙুল তুলে অভিযোগ করে মেসি বলেন, ব্রাজিলকে শিরোপা জেতানোর জন্য এবারের কোপা আমেরিকা সাজানো হয়েছে। ব্রাজিলকে চ্যাম্পিয়ন করতে আগে থেকেই সবকিছু ঠিক করে রেখেছে কনমেবল।

একজন পেশাদার ফুটবলারের মুখ থেকে এতো বড় আসর নিয়ে এমন অভিযোগ করার বিষয়টি মেনে নেয়নি কনমেবল। 

এএইচ


oranjee