ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯ | ৯ ভাদ্র ১৪২৬

 
 
 
 

স্টার্ক-আর্চার কে ছাড়াই শুরু হচ্ছে অ্যাশেজ

গ্লোবালটিভিবিডি ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ০১, ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বকাপে যে দুই পেসারের আগুনে বোলিংয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিলেন বিপক্ষ ব্যাটসম্যানরা, সেই দু’জনকে ছাড়াই সম্ভবত শুরু হতে চলেছে এ বারের অ্যাশেজ দ্বৈরথ। এক জন, ইংল্যান্ডের ফাস্ট বোলার জোফ্রা আর্চার। অন্য জন, অস্ট্রেলিয়ার বাঁ-হাতি পেসার মিচেল স্টার্ক।

বুধবার, অ্যাশেজ শুরুর আগের দিন, এজবাস্টন অ্যাশেজ জন্য ইংল্যান্ড তাদের প্রথম এগারো ঘোষণা করেছে। যে একাদশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে জিমি অ্যান্ডারসনকে। কিন্তু রাখা হয়নি আর্চারকে। আবার অস্ট্রেলিয়া শিবিরের যা খবর, তাতে স্টার্ককে প্রথম টেস্টের জন্য বাইরে থাকতে হতে পারে।

অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার আগের দিনই মোটামুটি বলে দিয়েছিলেন, জেমস প্যাটিনসন দীর্ঘদিন বাদে আবার জাতীয় দলে ফিরতে চলেছেন। প্যাটিনসনের পাশে প্যাট কামিন্সের খেলার ব্যাপারটাও নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। সে ক্ষেত্রে তৃতীয় পেসার হওয়ার লড়াইয়ে আছেন স্টার্ক, জস হেজলউড এবং পিটার সিডল। কেউ কেউ মনে করছেন, শেষ মুহূর্তে দলে ঢুকে যেতে পারেন হেজলউড বা সিডলের মধ্যে কোনও এক জন। এ দিন আবার সিডল টুইট করেছেন, ‘‘আর একটা রাত। তার পরেই শুরু হচ্ছে অ্যাশেজ।’’ যে টুইট দেখার পরে অনেকে মনে করছেন, সিডলই হয়তো শেষ মুহূর্তে টিম ম্যানেজমেন্টের ভোট পেয়ে যেতে পারেন।


অ্যাশেজে নামার আগে অস্ট্রেলিয়া আবার প্রেরণা খুঁজছে এক জন প্রাক্তন ব্রিটিশ প্রধামন্ত্রীর থেকে। তাঁর নাম উইনস্টন চার্চিল! অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক টিম পেন এ দিন সাংবাদিক বৈঠকে এসে বলেছেন, ‘‘আমাদের ড্রেসিংরুমে এই সপ্তাহে উইনস্টন চার্চিলের একটা উদ্ধৃতি রয়েছে। যেখানে চার্চিল বলেছেন, ‘ব্যবহার মিথ্যা বলে না।’ মাঠে আমরা কী রকম ব্যবহার করব, তা নিয়ে অনেক কথাই বলা যেতে পারে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আপনারা নিজেরাই মাঠে আমাদের ব্যবহার দেখে সব কিছু বিচার করতে পারবেন।’’

জানা গিয়েছে, চার্চিলের এই উদ্ধৃতি সামান্য বদলে দিয়ে ড্রেসিংরুমে দেওয়ালে লাগানোর পরিকল্পনাটা অস্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ ব্র্যাড হ্যাডিনের। তবে ব্রিটিশ প্রচারমাধ্যমের খবর, যাঁরা ক্রিকেট জীবনে হ্যাডিনের বিরুদ্ধে খেলেছেন, তাঁরা নাকি এখন বাঁকা হাসি হাসছেন এই খবর শুনে। স্লেজিং করার ব্যাপারে রীতিমতো পারদর্শী ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার এই প্রাক্তন উইকেটকিপার।

এ বারের অ্যাশেজ-দ্বৈরথে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়কও এক জন উইকেটকিপার। তিনি টিম পেন। তবে পেনের নিজের জায়গা নিয়েই অনেক প্রশ্ন থাকছে। দলে নিয়ে আসা হয়েছে আর এক উইকেটকিপার ম্যাথু ওয়েডকে। যিনি ব্যাট হাতেও ভাল ফর্মে আছেন। অন্য দিকে অধিনায়ক হওয়ার পরে পেনের ব্যাটিং গড় মাত্র ২৭। তবে এ সব নিয়ে চিন্তিত নন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক। তিনি বলেছেন, আমার বয়স এখন ৩৪। আমি আর দলে থাকব কি না, এই সব নিয়ে একদমই ভাবি না। আমাকে একটা কাজ দেওয়া হয়েছে। সেই কাজটা শেষ করে আসতে চাই। ৩৪ বছর বয়সে আপনি যদি পরের টেস্ট ম্যাচ নিয়ে ভাবতে বসেন, তা হলে বলতে হবে নিজের সঙ্গে স্রেফ মজাই করছেন।

অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে দলে ফিরছেন এক বছর আগে বল বিকৃতি কাণ্ডে শাস্তিপ্রাপ্ত তিন ক্রিকেটার— স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট। এই ত্রয়ীর উপরে বিশেষ নজর থাকবে সবার।

আরকে


oranjee