ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

দূর্গা পূজায় বাজছে ঢোল, খেতে চান খাসির ঝোল!

গ্লোবালটিভিবিডি ৩:০৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ০৬, ২০১৯

চলছে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান শারদীয় দুর্গোৎসব। পাড়ায় পাড়ায় তৈরি হয়েছে পূজা মণ্ডপ, বাজছে ঢোল। ঠাকুর দেখার পাশাপাশি বাড়িতে বাড়িতে চলছে সুস্বাদু রান্নার আয়োজনও। উৎসবের এ আমেজে মজাদার খাবার যোগ করবে ভিন্ন মাত্রা। জেনে নিন দুর্গোৎসব উপলক্ষ্যে বাড়িতে কিভাবে তৈরি করবেন কাটা মশলার মাংসঝোল।

উপকরণ
মাটন-এক কেজি, পেঁয়াজ কুঁচি-ছয়টি বড়, রসুন-চার কোয়া, আদা-দুই ইঞ্চি, কাঁচা লঙ্কা-৫-৬টি, টকদই-২০০ গ্রাম, সরষের তেল-দুই টেবিল চামচ,ঘি-দুই টেবিল চামচ, নুন-স্বাদমতো, শুকনো লঙ্কা-৬-৮টি, লবঙ্গ-পাঁচটি, এলাচ-চারটি, দারচিনি-দুই ইঞ্চি, চিনি-এক টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়ো-এক চা চামচ, কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো-এক চা চামচ, তেজপাতা-দুইটি

পদ্ধতি
প্রথমে মাংসের টুকরাগুলো ধুয়ে পরিষ্কার করে শুকনা লঙ্গা, লবঙ্গ, গোলমরিচের গুঁড়ো, এলাচ, দারচিনি, চিনি, হলুদ গুঁড়ো, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো, পেঁয়াজ কুঁচি, আদা, রসুন, চেরা কাঁচা লঙ্কা ও সরষের তেল দিয়ে ভালোভাবে ম্যারিনেট করতে হবে। এর পর মুখবন্ধ পাত্রে ম্যারিনেট করা মাংস রেখে ডিপ ফ্রিজে আট ঘন্টার জন্য রেখে দিতে হবে।

এরপর রান্নার জন্য কড়াইতে সরিষের তেল গরম করে তাতে তেজপাতা, শুকনা লঙ্কা, লবঙ্গ, কালো গোলমরিচ, দারচিনি ও এলাচ দিতে হবে। মসলা থেকে গন্ধ ছাড়লে এর পর মেরিনেট করে রাখা মাংস দিয়ে দিতে হবে। অবশ্যই রান্না জন্য ডিপ ফ্রিজ থেকে ঘন্টা দুয়েক আগে মাংস বের করে রাখতে হবে। এর পর ভালো করে কষিয়ে নিয়ে নুন দিয়ে দিতে হবে। পাত্রের মুখটা বন্ধ করে অল্প আঁচে পনের মিনিট আভেনে রাখতে হবে।

পাত্রের ঢাকনা খুলে টকদই দিয়ে ভালোভাবে নেড়েচেড়ে পুনরায় পাত্রের মুখ বন্ধ করে অল্প আঁচে ঘন্টাখানেকের জন্য রেখে দিতে হবে। তবে মাংস ধরে না যায় সেজন্য কিছুক্ষণ পরপর ঢাকনা খুলে অবশ্যই নেড়েচেড়ে দিতে হবে। এ সময়ের মাঝে মাংস থেকেই প্রয়োজনীয় জল বের হয়ে মাংস সিদ্ধ হবে। তবে যদি প্রয়োজন হবে সেক্ষেত্রে এক কাপ গরম জল দিতে দিতে পারেন। বেশ মাখামাখা হয়ে গেলেই তৈরি হয়ে যাবে কাটা মাংসের ঝোল।

এমএস


oranjee