ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

২০২০ সাল থেকে আর মিউজিক ভিডিও করবো না : আসিফ

গ্লোবালটিভিবিডি ১:৩৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৯

আসিফ আকবর। ছবি: ওমর ফারুক টিটু

ভাগ্যের খেলা খেলিনি, খেলতেও জানিনা। বারবার ভাগ্য আমার সহায় হয়েছে কিংবা বিধাতা ভাগ্যকে আমার অধীনে রেখে দিয়েছেন। গান গাওয়াটা আমার সৌভাগ্য, প্রতিনিয়ত প্রতিরোধে পড়া আমার অর্জন, তারপরও জয়ের মালায় শক্ত গিট্টু এভয়েড করে জয় আমার ভাগ্যেই এসেছে।

‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’ থেকে শুরু করে সমস্ত প্রস্তর প্রশ্বস্ত এবং বন্ধুর পথ পেরিয়ে আসা প্লেয়ার আমি। এটা আমার অর্জন নয়, সৌভাগ্য। ময়মুরুব্বীর দোয়া হিসেবেই মানি। সত্য কথা বলা, সৎ পথে চলার পুরস্কার হিসেবে শত্রুতা পেয়েছি, অবশ্যই খুঁজে বেড়িয়েছি, নইলে পেলাম কোথায়!

কাজের প্রতি নেশা আমার মূল অস্ত্র। সমস্ত প্রতিবন্ধকতা আমার দুর্বল সঙ্গী হয়েছে মাত্র। তারপরও একজন মানুষকে একটা লক্ষ্যে থাকতে হয়, আমি থেকেছি। পরের বারের দৌড়ে রেসমেট পাইনি। শুরু থেকেই আটকে যাওয়া কিংবা আটকে দেওয়ার সংস্কৃতিকে ভেঙ্গে চুরে গুড়ো গুড়ো করে এগিয়েছি। ভাগ্যের সাথে সহায় ছিলো সাহস আর এগিয়ে যাওয়ার প্রতিজ্ঞা। প্রথম কাজ থেকেই ভাগ্য আমার সহায় হয়নি, আবার অসহায়ও করেনি, সিষ্টেম লসে পড়েছিলাম, এ লসটা এখন পর্যন্ত তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে আমাকে। প্রতিটা কাজই নানান কিসিমের অন্তরায় হিসেবে ভালবেসে আলিঙ্গন করেছে আমায়। হালকা রাগের পাশে যুদ্ধ জয়ের নেশায় জিতে গেছি বারবার।

দেশজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা আমার ফ্যান কিংবা আমার সৃষ্টির নেপথ্যে কর্মীরা এখনো প্রাণবন্তভাবে আমার সঙ্গেই আছেন। প্রতিকূলতা আমার সবচেয়ে বড় বন্ধু। প্রযুক্তির যুগে এসে একটা জিনিস দেখেছি, যেটা প্রযুক্তির বাইরের সময়ও বিদ্যমান ছিলো, সিদ্ধান্ত রোবট কিংবা মানুষ, যেভাবেই পরিচালিত হউক না কেনো, ব্যাপারগুলো আমার বিরুদ্ধেই যায়। ইউটিউবে আমার আমি তুমিময় গানের ভিউ শূন্য দেখাচ্ছে, আবার সেট হয়েও গিয়েছে। ও প্রিয়ার সময়ও বন্যা টন্যা ছিলো, আমি এখনো আছি।

ইন্ডিয়ান ম্যাগাষ্টার দীলিপ কুমারকে ৮০% সিনেমায় মেরে ফেলার প্রসঙ্গে তিনি বলেছিলেন, আমাকে না মেরে ফেললে সিনেমা হিট হয়না। আমি হিটের প্রসঙ্গে যাবো না। শুধু এইটুকু বলতে চাই পরিস্থিতি যাই হোক ভিডিওর মৃত্যু আপেক্ষিক, আপনাদের ভালবাসাই আমার জীয়নকাঠি। ২০২০ সাল থেকে খুব প্রয়োজন না হলে আর মিউজিক ভিডিও করবো না। তার আগ পর্যন্ত সহ্য করুন। মিউজিক ভিডিও পরে, গান আসলেই শোনার বিষয়। অনেক হয়েছে, আশা করি ইন্ডাস্ট্রি এভাবেই নিজেকে নার্সিং করবে।

ভালবাসা অবিরাম...।

 

এমএস 

 


oranjee