ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১ আশ্বিন ১৪২৬

 
 
 
 

স্টার কাবাবের ফালুদায় টিনের শক্ত ধাতব বস্তু

গ্লোবালটিভিবিডি ৫:৪৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ১০, ২০১৯

রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের স্টার হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টে ফালুদায় টিনের শক্ত ধাতব বস্তু পাওয়া গেছে। শুক্রবার ( ৮ই মার্চ) ঢাকার স্টার কাবাবে পরিবারসহ খেতে যান সঙ্গীতশিল্পী এবং ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির প্রভাষক ফাহিম ফয়সাল। কিন্তু সেখানে তার সঙ্গে ঘটে কিছু অপ্রীতিকর ঘটনা। যা তিনি পরে ফেসবুকে পোষ্ট দিয়ে সবাইকে জানান- গতকাল ৮ই মার্চ, শুক্রবার ২০১৯, রাত ৯ টার দিকে, ঠিকানা ৬৬-৬৭ ড. কুদরত-ই-খুদা রোড, নিউমার্কেট, ঢাকা (এলিফ্যান্টরোড, বাটা সিগনাল এর পাশে) 'স্টার হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট' এ আমার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ফালুদা খেতে গিয়ে এই 'টিনের শক্ত ধাতব বস্তু'টি পাওয়া যায়। আল্লাহর অশেষ রহমতে যা গলা দিয়ে পেটে যায়নি।

যেটি ঘটে গেলে মারাত্মক কিছু হতে পারতো। পরবর্তীতে এটা কেন হলো তা জানতে ও প্রতিকার চাইতে আমি হোটেল এর মেসিয়ার দ্বারা রেস্টুরেন্ট ম্যানেজারকে অনেক ডাকাডাকির পর প্রায় ১৫ মিনিট পর সে আসে। এসেই সে উত্তেজিত হয়ে হুমকি ধামকি দিতে থাকে। উল্টো অভিযোগ দিয়ে বলে, এটা পাওয়া গেছে তাতে কি? বেশি কথা বললে পুলিশকে ডাক দিবে। আর ধাতব বস্তুটি কেড়ে নিতে চায়। পরে আমি যখন রেগে গিয়ে বলি অন্যায় করেছেন আপনারা আর হুমকি দিচ্ছেন আমাদের? আপনার কে আছে তারে ডাকেন, তার সাথে কথা বলবো। তখন অন্য কাস্টমাররা আমাদের পাশে অবস্থান নেয়ায় সে দ্রুত চলে যায়। আমরা তার নাম জিজ্ঞেস করলেও সে নাম বলে না।

পরে অন্যদের থেকে তার নাম জানতে পারি, তার নাম আসাদ। পরে আমরা ভ্যাটসহ ৩টি ফালুদার ২০৭ টাকা বিল পরিশোধ করে চলে আসি। প্রমাণস্বরূপ আমার কাছে ধাতব বস্তু, মানি রিসিট ও ছবি রয়েছে। সব প্রমাণ রয়েছে। আমি চাই মাননীয় সরকারের ভোক্তা অধিকার আইনের মাধ্যমে দ্রত এর সুষ্ঠু বিচার ও প্রতিকার। পাশাপাশি এই প্রতিষ্ঠান যেন আগামীতে ভোক্তার সাথে এমন প্রতারণা করতে না পারে তার ব্যবস্থাও।

এমএস


oranjee