ঢাকা, রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৬ আশ্বিন ১৪২৬

 
 
 
 

সংখ্যালঘুদের জন্য মন্ত্রণালয় বা কমিশন হতে পারে : জিএম কাদের

গ্লোবালটিভিবিডি ৭:৪৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৯

ফাইল ছবি

দেশের সংখ্যালঘুদের স্বার্থ রক্ষায় মন্ত্রণালয় অথবা কমিশন গঠনের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে শ্রীকৃষ্ণ সেবা সংঘ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘দেশে সংখ্যালঘুদের স্বার্থ রক্ষায় তাদের জন্য হয় সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় অথবা সংখ্যালঘু কমিশন হতে পারে। এটা তাদের সামনে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে।’

কাদের বলেন, ‘জাতীয় পার্টি অতীতের মতো সবসময় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের পাশে রয়েছে এবং তাদের যৌক্তিক দাবির সাথে সংসদে এবং রাজপথে কার্যকর ভূমিকা রাখছে।’

তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী ও সম্প্রদায়ের মধ্যে কোনো বিভাজন থাকা উচিত নয়। কারণ সব ধর্মের লক্ষ্যই হলো ন্যায় ও সমতার ভিত্তিতে সমাজ বিনির্মাণ করা। দেশের মাত্র ৫ শতাংশ মানুষ ব্যক্তিগত স্বার্থসিদ্ধির জন্য ধর্মের অপব্যবহার করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে। কিন্তু জনগণ তাদের কখনোই গ্রহণ করে না।’

বাংলাদেশের প্রধান রাজনৈতিক দলগুলো সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বিশ্বাস করায় এখানে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটুট থাকবে বলেও এসময় আশা প্রকাশ করেন জাতীয় পার্টি প্রধান।

আলোচনা সভায় জিএম কাদের হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য তাদের দলের সাবেক চেয়ারম্যান ও তার বড়ভাই প্রয়াত এইচএম এরশাদের শাসনামলে নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা স্মরণ করেন।

তিনি বলেন, ‘এই জন্মষ্টমী তিথিকে এরশাদ প্রথম সরকারি ছুটি হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন। তিনি হিন্দুদের অধিকার ও স্বার্থ রক্ষায় হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টও গঠন করেছিলেন।’

এমএস


oranjee