ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৩১ ভাদ্র ১৪২৬

 
 
 
 

শফিকুর রহমান শান্তনুর কবিতা ‘শাড়ি পরলে তোমায় প্রেমিকা লাগে!’

গ্লোবালটিভিবিডি ৮:১৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২১, ২০১৯

শাড়ি পরলে তোমায় প্রেমিকা লাগে

 

অথচ মেয়েটি কোনদিন শাড়ি পরে তার সামনে আসে নি।
শাড়ি পরে সামলানো বিরাট ঝক্কি।
সেবার তো সে কী অঘটন! অল্পে রক্ষা!
মেয়েটি অবাক হয়ে জানতে চায়, আমায় শাড়ি পরে দেখলে কবে?

ছেলেটি পদ্মার ফুঁসে ওঠা প্রবল ঢেউয়ের মতো সরল আত্মবিশ্বাসে জানায়, স্বপ্নে!
হলদে শাড়িতে মনে হচ্ছিল স্বর্ণ কাঞ্চন ফুটে আছে
তোমার বুকে! কালো বৃন্তে অবাক মুগ্ধতা।

মেয়েটা বড় লজ্জা পায়। সারারাত আয়নায় দেখে নিজেকে।
নগ্ন।
এ যেন আবিস্কারের এক আদিম নেশা- যদি স্বর্ণ কাঞ্চন হঠাৎ ফুটে ওঠে বুকে।
ছেলেটা এত আজব!

বাজার ঘুরে ঘুরে সেই স্বর্ণ কাঞ্চন রং শাড়ি খুঁজে আনে।
চোখে কাজল। কপালে টিপ। হাতে কাঁচের চুরি।
ছেলেটা সত্যি চমকে যাবে আজ।

তখনই টিভির ব্রেকিং নিউজে ভেসে আসে- ছেলেধরা সন্দেহে নগরীতে নিহত যুবক।
মেয়েটির আর প্রেমিকা হওয়া হয় না।

শুধু কখনো শ্রাবণ জ্যোৎস্নায় সবকিছু উড়িয়ে নেয়া
বখাটে বাতাসে ডুবে যেতে যেতে মনে হয়
নাইবা হলো সে আমার
তবু আমি বাতাসের বিপরীতে হাঁটবো।

দেখবো কার শূণ্যতা বেশি
আমার নাকি বাতাসের!

লেখক

 

এমএস


oranjee