ঢাকা, বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ | ১২ আষাঢ় ১৪২৬

 
 
 
 

জান্নাতুল বাকী-এর কবিতা ‘বৈশাখ তোমার মূল্য’

গ্লোবালটিভিবিডি ১:০২ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০১৯

বৈশাখ তোমার মূল্য

জান্নাতুল বাকী

 

বৈশাখ,

তোমার মূল্য বোঝে
চৈত্রের খা খা রোদ্দুরে ফাটা বৈশাখ তোমার মূল্যজমি।
যার হৃদয় তোমার পানির প্রতীক্ষায় থাকে।
আমি কতটুকুই বা বুঝি!

বৈশাখ,
তোমার মূল্য বোঝে
গ্রামের কিশোর-কিশোরী।
যারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে উঠানে
কিছু পানি ঢালে প্রতীক হিসাবে।
আর গড়াগড়ি করে গান গায়,
'আল্লাহ মেঘ দে, পানি দে।'
আমি কতটুকুই বা বুঝি!

বৈশাখ,
তোমার মূল্য বোঝে
গ্রামের চাষী। চৈত্রের চিন্তার পর
নতুন ধান তাদের মুখে
আনে কতো হাসি।
আমি কতটুকুই বা বুঝি!

বৈশাখ,
তোমার মূল্য বোঝে
চাতক পাখি।
তোমার বৃষ্টির কতো মূল্য।
আমি কতোটুকুই বা বুঝি!

বৈশাখ,
তোমার মূল্য বোঝে
যারা এখন শৈশবকালে আছে,
মৃত্যুকে এখনো বুঝতে পারেনি,
বজ্রপাতকে যারা চেনেনি, তারা বোঝে
ঝড়ে আম কুড়াতে কতোটা সুখ।
আমি কতটুকুই বা বুঝি!

বৈশাখ,
তোমার মূল্য বোঝে
লাল সাদা রং। কতো আদর তাদের।
সবাই লাল সাদা রঙে নিজেকে সাজায়।
আমি কতটুকুই বা বুঝি!

বৈশাখ,
তোমার মূল্য বোঝে
বৈশাখী মেলার জিনিসপত্র।
লেইস ফিতা, চুড়ি, কুলা, পাখা ইত্যাদি।
পান্তা ভাত, মরিচ আর ইলিশ মাছ।
আমি কতটুকুই বা বুঝি!

আমি বুঝি,
তুমি বছরের প্রথম মাস।
তবে তুমি ঝড় মানে ধ্বংস।
বিচ্ছেদ, কালবৈশাখী।
তবুও স্বাগত জানাই,
এসো হে বৈশাখ
তবে তাণ্ডব লীলা নিয়ে নয়।
আমাদের জীবন যেন সুখময় হয়।
এর চেয়ে বেশি আমি কি বলতে পারি!
আমি কতটুকুই বা বুঝি!

 

 লেখক


oranjee