ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

 
 
 
 

গ্লোবাল টিভি অ্যাপস

বিষয় :

ঢাকা

  • ৫২ পণ্য অপসারণে ব্যর্থতা: নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ চেয়ারম্যানকে তলব
  • দুই বাসের রেষারেষিতে নিহত রাজীবের ক্ষতিপূরণের রায় ২০ জুন
  • অনলাইনে পণ্য বিক্রির নামে কৌশলে প্রতারণা, আটক ৭
  • গাজীপুরে সেপটিক ট্যাংক থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার
  • পূর্বাচলে প্লট বরাদ্দে অনিয়ম: রাজউকের নথি তলব হাইকোর্টে
  • ভারতে যে দলই সরকার গঠন করুক, সম্পর্ক স্বাভাবিক থাকবে: কাদের
  • নারী নির্যাতন প্রতিরোধে সংস্কৃতির ভূমিকা শীর্ষক অনুষ্ঠান আজ

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় তিতলি!

গ্লোবালটিভিবিডি ৯:০০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৯, ২০১৮

ছবি : ইন্টারনেট

বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। 'তিতলি' নামের এই ঘূর্ণিঝড়ের কারণে দেশের চার সমুদ্রবন্দরে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় আবহাওয়া অধিদফতরের বিশেষ এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি পশ্চিম দিকে সামান্য অগ্রসর ও ঘনীভূত হয়ে একই এলাকায় ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। 'তিতলি' নামের ঘূর্ণিঝড়টি মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৩০ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল।

ঘূর্ণিঝড়টি আরও ঘনীভূত হয়ে উত্তর/উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের কাছে সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুশিঁয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর।

২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত মানে হল- দূরে গভীর সাগরে একটি ঝড় সৃষ্টি হয়েছে। সেখানে বাতাসের একটানা গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২-৮৮ কিলোমিটার। বন্দর এখনই ঝড়ে কবলিত হবে না। তবে বন্দর ছেড়ে যাওয়া জাহাজ পথে বিপদে পড়তে পারে।

আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থারনরত ঘূর্ণিঝড়টি মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্র বন্দর থেকে ৯৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিম, মোংলা থেকে ৮৮০ কিলেমিটার দক্ষিণ- দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল।

এছাড়া উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

এমএস


oranjee

আরও খবর :