ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

 
 
 
 

সুন্দরবন উপকূলে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

গ্লোবালটিভিবিডি ১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১০, ২০১৯

সংগৃহীত ছবি

পশ্চিমবঙ্গে দুর্বল হয়ে বাংলাদেশের সুন্দরবন উপকূলে অতিক্রম করবে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। এরইমধ্যে, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে সুন্দরবন এলাকায় আঘাত হানতে শুরু করেছে ঝড়টি।

ঝড়টি উপকূল অতিক্রম করতে ভোররাত হয়ে যাবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ঘূর্ণিঝড়টি ভোররাতে খুলনা-বরিশাল উপকূল অতিক্রম করবে। ঘূর্ণিঝড়ের কেন্দ্রে ঘন্টায় ১০০ থেকে ১২০ কিলোমিটার গতিবেগে বাতাস অতিবাহিত হতে পারে। নিম্নাঞ্চলে জোয়োরের কারণে জলোচ্ছ্বাস হতে পারে। শনিবার রাত ১১টায় আবহাওয়া অধিদপ্তরের ব্রিফিংয়ে এই কথা জানিয়েছেন উপ-পরিচালক আয়েশা খাতুন।

ঝড়ের কারণে মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করা হয়েছে। চট্টগ্রাম বন্দরে ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ও কক্সবাজারে ৪ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছে প্রশাসন। রোববার বুলবুলের প্রভাব কেটে যাবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এদিকে, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলা ও দুর্যোগ পরবর্তী সব রকমের সহযোগিতায় প্রস্তুত রয়েছে উপকূলবর্তী সেনাবাহিনীর সব পদাতিক ডিভিশন। এরইমধ্যে, সাতক্ষীরায় মোতায়েন করা হয়েছে সেনাবাহিনী। দুর্ঘটনা এড়াতে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া, বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনা ও চাঁদপুরের অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার নৌচলাচল বন্ধ রয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সকাল ছয়টা পর্যন্ত চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দর বন্ধ রাখা হয়েছে।

এদিকে, ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। এর প্রভাবে, কলকাতায় এবং ওড়িশায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। বুলবুল পশ্চিমবঙ্গে তিনঘণ্টা ধরে তাণ্ডব চালাবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

প্রবল ঝড়ে কলকাতা ও আশেপাশের এলাকায় প্রবল ঝোড়ো বৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়া সাগরদ্বীপ, পশ্চিম মেদিনীপুরের খেজুরি, নন্দীগ্রাম, নয়াচরসহ রামনগর এলাকায় বেশকিছু ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রবিবার ভোর ৬টা পর্যন্ত কলকাতার নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু বিমানবন্দর বন্ধ রাখা হয়েছে। আগে থেকে না জানানোয় বিমানবন্দরে আটকে পড়ে অসংখ্য যাত্রী। পরে, তাদের বাড়ি ফিরতে ১০টি বাসের ব্যবস্থা করে রাজ্যের পরিবহণ বিভাগ। এছাড়া, হাওড়া ও শিয়ালদহতে বাতিল করা হয়েছে বেশ কয়েকটি ট্রেন চলাচল।

এমএস


oranjee