ঢাকা, শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯ | ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

যারা গুজব ছড়াচ্ছে তাদের চিহ্নিত করা হচ্ছে

গ্লোবালটিভিবিডি ৪:৩৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৩, ২০১৯

ছবি সংগৃহীত

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘ফেসবুকে যেভাবে গুজব রটানো হয় সেটি আমাদের কাম্য নয়। যারা ফেসবুক ব্যবহার করেন তাদের প্রতি অনুরোধ, তথ্য যাচাই না করে কোনও ম্যাসেজ ফেসবুকে দেবেন না। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে যারা গুজব রটাচ্ছেন তাদেরকে আইডেনটিফাই করছি।’

রোববার (৩ নভেম্বর) বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) সংলাপে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। বিএসআরএফ’র নিজস্ব কার্যালয়ে সংগঠনের সভাপতি তপন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদের সঞ্চালনায় এই সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পদ্মা সেতুতে মাথা লাগবে, যদি বাংলাদেশের মানুষ এ ধরনের গুজবে সাড়া দেয় তাহলে কিছু বলার নেই। গুজবে বিশ্বাস না করে আগে তথ্য যাচাই করুন, গুজব সঠিক কিনা। তাই যারা ফেসবুক ব্যবহার করেন তাদের প্রতি অনুরোধ সাবধানে ব্যবহার করুন। সমাজে প্যানিক সৃষ্টি করবেন না।’ সরকারি চাকরিতে ডোপ টেস্ট কবে থেকে চালু হবে, জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অধীনে যে সমস্ত নিয়োগ হয় সেখানে ডোপ টেস্ট চালু হয়েছে। অন্যত্র সেক্টরগুলোতে যেন এই প্রথা চালু হয় সেজন্য সিভিল সার্জনদের প্রধানমন্ত্রীর অভিপ্রায় জানানো হয়েছে।

ই-পাসপোর্ট কবে নাগাদ চালু হবে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ই-পাসপোর্ট তৈরি করছে। আমি সুনির্দিষ্টভাবে বলতে পারবো না কবে নাগাদ চালু হবে।’এরপর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল আধুনিক বিশ্বের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন। আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন অধিদফতর এবং সংস্থাগুলোকে পরিচ্ছন্ন করছি। সরকারের মেয়াদ শুরু থেকে জঙ্গি ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করছি। পুলিশের জনবল দক্ষতা বাড়াতে তাদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছি। প্রধানমন্ত্রীর প্রথম মেয়াদে ৩০ হাজার ও পরবর্তী মেয়াদগুলোতে আরও ৫০ হাজারসহ মোট ৮০ হাজার পুলিশের জনবল বাড়িয়েছি।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আগামী ৫০ বছর পর কী ধরনের সেবা জনগণকে দিতে হবে সেটি মাথায় রেখে নতুন থানা ভবন তৈরি করা হয়েছে। দেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। প্রধানমন্ত্রী চান দেশ আরও এগিয়ে যাক। আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘পুলিশের নতুন ১৫টি ইউনিট করা হয়েছে। হেলিকপ্টার যুক্ত করার প্রক্রিয়া চলছে। ‘৯৯৯’ সার্ভিস আরও শক্তিশালী হবে এবং এর সুফল ইতোমধ্যে জনগণ পেতে শুরু করেছে। ময়মনসিংহ ও গাজীপুরে মেট্রোপলিটন পুলিশ করার প্রক্রিয়া চলছে। র‌্যাবকে আধুনিকায়ন করা হচ্ছে। র‌্যাবের প্রধান দফতরসহ ১৪টি উন্নতমানের অবকাঠামো নির্মিত হচ্ছে।’

সীমান্ত সুরক্ষা নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সীমান্ত সুরক্ষায় বর্ডার রোড হবে। তার কাজ চলছে। বিজিবিতে হেলিকপ্টার যুক্ত হবে। বিজিবিতে ১৪১টি পদ বাড়ানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নারী সৈনিক যুক্ত হয়েছে। আমরা কোস্ট গার্ড, নৌ-পুলিশকে শক্তিশালী করেছি। সেখানে আধুনিক যন্ত্রপাতিও যুক্তি করা হয়েছে। আগে ব্যাটালিয়ন আনসারদের চাকরি স্থায়ী হতো ৯ বছরে এখন তা ৬ বছরে হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আনসার একটি গুরুত্বপূর্ণ বাহিনী। নির্বাচনের সময় ৬ লাখ, পূজার সময় ১ লাখ আনসার দায়িত্ব পালন করেছে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আড়াই কোটি মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) ইস্যু করা হয়েছে। শিগগিরই বাংলাদেশে ই-পাসপোর্ট প্রথা চালু করবে। সে লক্ষ্যে কাজ চলছে।’
আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করা হচ্ছে। মনে রাখতে হবে, মাদকসেবী নিজে নয়, একটি জাতিকেও ধ্বংস করছে। আমরাও সম্ভাবনাময় প্রতিভা হারাচ্ছি।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ফায়ার সার্ভিসকে যুযোপযোগী করছি। আগে ৯ তলার ওপরে আগুন লাগলে সে ধ্বংসকাণ্ড তাকিয়ে তাকিয়ে দেখা ছাড়া উপায় ছিল না। এখন ২৩ তলা পর্যন্ত অগ্নিনির্বাপণের যন্ত্র বাংলাদেশে আছে। আমরা রানা প্লাজার অভিজ্ঞতা নিয়ে আধুনিক ফায়ার সার্ভিস গড়ে তুলছি।’স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আগে কারাগারে ২৮ হাজার কারাবন্দি রাখার সক্ষমতা ছিল।

এখন ৩৬ হাজারের বেশি ধারণ ক্ষমতার সক্ষমতা রয়েছে। আমরা পুরান জেলখানাকে দর্শনীয় স্থানে রূপান্তরে কাজ করছি। কারণ সেখানে বঙ্গবন্ধু বন্দি ছিলেন, জাতীয় চার নেতা শহীদ হয়েছেন। কারাবন্দিদের খাবারসহ নানা সুযোগ সুবিধা বাড়িয়েছি। ফোনে স্বজনদের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ করে দিয়েছি। কারাগারের হাসপাতালগুলোর জন্য চিকিৎসক সংকট নিরসণে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে আলাদা মেডিক্যাল ইউনিট গঠন করা হয়েছে। সেখান থেকেই ডাক্তার নিয়োগ দেওয়া হয় কারাগারগুলোতে।

এমএইচএন/আরকে

 

 


oranjee

আরও খবর :