ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

 
 
 
 

গ্লোবাল টিভি অ্যাপস

বিষয় :

ঢাকা

  • সকল ক্ষেত্রে মায়ের নাম কেন সংযুক্ত করা হবে না: হাইকোর্টের রুল
  • বিএসটিআই’র পরীক্ষা ছাড়া ৫২ পণ্য বাজারজাত করা যাবে না
  • ঈদে সারাদেশে নিরাপত্তা জোরদার করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • মুক্তিযোদ্ধাদের ন্যূনতম বয়স সংক্রান্ত মন্ত্রণালয়ের পরিপত্র অবৈধ: হাইকোর্ট
  • বিচারাধীন বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ না করার নির্দেশ হাইকোর্টের
  • সেই ৫২টি নিম্নমানের পণ্যের লাইসেন্স বাতিল করলো বিএসটিআই
  • রাজধানীতে অপহরণ ও মুক্তিপণ মামলায় ২ জনের মৃত্যুদণ্ড

৫২টি মানহীন পণ্য ১০দিনের মধ্যে প্রত্যাহারের নির্দেশ হাইকেোর্টের

গ্লোবালটিভিবিডি ১:৪৭ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০১৯

ফাইল ছবি

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি মানহীন ও ভেজাল পণ্য আগামী ১০দিনের মধ্যে বাজার থেকে তুলে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। সেইসঙ্গে এসব পণ্যের উৎপাদক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি মানহীন ও ভেজাল পণ্য নিয়ে দায়েল করা রিটের শুনানি শেষে রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালত এসব ভেজাল পণ্য অপসারণের পাশাপাশি সেগুলো ধ্বংস করার নির্দেশও দেন। আদালত বলেছেন, এগুলো ধ্বংস করে ফেলতে হবে যেন তৃতীয় কারও হাতে না যায়।

এর আগে সকালে এসব মানহীন পণ্যের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্স অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনের (বিএসটিআই) ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের দুই কর্মকর্তা হাইকোর্টে আসেন। তারা হলেন- বিএসটিআইয়ের পরিচালক প্রকৌশলী এস এম ইসহাক আলী ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পরিচালক ড. সহদেব চন্দ্র সাহা।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান নিজেই। বিএসটিআইয়ের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সরকার এম আর হাসান আর নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পক্ষে অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম।

বিএসটিআইর পরীক্ষায় অনুত্তীর্ণ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি পণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহার করে নিতে রিটটি করেন কনসাস কনজুমার সোসাইটির পক্ষে ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ৯ মে বিএসটিআই এর পরীক্ষায় প্রমাণিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি ভেজাল ও নিম্নমানের পণ্য জব্দ এবং এসব পণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহার ও উৎপাদন বন্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে কিনা সে বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বিএসটিআই ও বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য অধিদফতরের কর্মকর্তাকে তলব করেন হাইকোর্ট।

এএইচ/এমএস


oranjee

আরও খবর :