ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯ | ১ কার্তিক ১৪২৬

 
 
 
 

বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করল ভারত

গ্লোবালটিভিবিডি ৮:৩৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯

বন্যার কারণে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত।

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে রোববার বিকাল ৩টার দিকে ভারতীয় পেঁয়াজ বোঝাই ১৪টি ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করলেও সকাল থেকেই বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজের কোনো ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি।

এদিকে পেঁয়াজ না আসার খবর ছড়িয়ে পড়লে হিলি স্থলবন্দরের মোকামগুলোতে পাইকারিতে পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি ২৫ টাকা করে বেড়ে গেছে বলে জানিয়েছেন হিলি প্রতিনিধি।

হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসায়ী মোবারক হোসেন বলেন, ভারতের স্থানীয় ব্যবসায়ীরা আমাদের ফোন করে জানিয়েছেন ভারতে ব্যাপকভাবে বন্যা দেখা দিয়েছে। সেখানে পেঁয়াজের সংকট হওয়ায় দাম কয়েকগুন বেড়ে গেছে। এতে ভারত সরকার আজ রবিবার বিকালে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে কাস্টমস কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি না করার জন্য আদেশ জারি করেছে।

এর ফলে বিকাল ৪টার পর বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ১০-১২টি ট্রাক বন্দরের গেট দিয়ে প্রবেশ করতে গেলে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ ও ব্যবসায়ীরা ট্রাকগুলো ফিরে নিয়ে গেছে বলে জানান তিনি।

বেনাপোল প্রতিনিধি জানিয়েছে, রবিবার সকাল থেকেই বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজের কোনো ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি। যদিও ওপারে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে আছে বেশ কিছু পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক।

বেনাপোল কাস্টমস হাউজের সহকারী কমিশনার উওম চাকমা জানান, ভারত আজ থেকে হঠাৎ পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ায় সকাল থেকে কোএনা পেঁয়াজের ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি। শনিবার পর্যন্ত ভারত থেকে প্রতিটন পেঁয়াজ ৮৫৫ মার্কিন ডলারে রপ্তানি হয়ে আসছিল বাংলাদেশে। গত মাসে ভারত সরকার ৪১০ মার্কিন ডলার থেকে পেঁয়াজের মূল্য বাড়িয়ে ৮৫৫ মার্কিন ডলার করে।

ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বেনাপোলসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পেঁয়ার মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। শনিবার বেনাপোল বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৬০ টাকা মূল্যে বিক্রি হলেও রবিবার সকাল থেকেই তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮০ টাকায়।

ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধের খবরে বন্দরের পানামা পোর্টে পাইকারিতে কেজি প্রতি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭৫ টাকায়। যা গতকাল শনিবার ছিল ৪৭-৫০ টাকা।

এমএস


oranjee